ঢাকা ০১:১৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোলার মেঘনা নদী থেকে ৩ চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছেন ডিবি পুলিশ

ভোলা সদর মডেল থানাধীন রাজাপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ কন্দকপুর গ্রামের গোলপাড় নামক নদীর পাড় থেকে ৩ চাঁদাবাজ কে গ্রেফতার করেছে ভোলা জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি)।

 

সোমবার (২৯ এপ্রিল) সকাল ১১ টায় জেলা গোয়েন্দা শাখা, ভোলার এসআই (নিঃ)/মোঃ আসাদুজ্জামান খান এর নেতৃেত্ব একটি চৌকস দল ভোলা সদর মডেল থানাধীন রাজাপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ কন্দকপুর সাকিনের গোলপাড় নামক নদীর পাড়ে অভিযান পরিচালনা করে পূর্ব ইলিশা ১নং ওয়ার্ডের কালাপোল এর বাসিন্দা মোঃ জহুর আহেম্মদ মাঝির ছেলে মোঃ তারেক (২০), পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সুদেরহাট এলাকার বাসিন্দা ইউনুছ দালাল এর ছেলে আল-আমিন (১৯), পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের চুইজ গেইট এলাকার বাসিন্দা রশিদ মাঝির ছেলে মোঃ মনির (২০) কে গ্রেফতার করে।

আটকৃতদের কাছ থেকে একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা, ৫০০০ মিটার মাছ ধরার জাল জব্দ করা হয়।

জেলা গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত আসামী ও তাদের পলাতক সহযোগী আসামীরা মেঘনা নদীতে বিভিন্ন সময়ে চুরি, ছিনতাই সহ নিরিহ জেলেদের জিম্মি করে চাঁদাদাবী সহ বিভিন্ন মালামাল লুট করিয়া থাকে। তারাই ধারাবাহিকতায় মেঘনা নদীতে সাইদুল ইসলাম (২৬), মোঃ মানিক হোসেন গোলদার (৪০) নামের ২ জেলেকে জিম্মি করে চাঁদাদাবী সহ মাছ ধরার জাল চুরি করাকালীন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা শাখা, ভোলা টিম তাদেরকে আটক করে এবং জিম্মি দশা থেকে ২ জন ভিকটিম কে উদ্ধার করে।

জেলা গোয়েন্দা সংস্থা (জিবি)’র অফিসার ইনচার্জ এনায়েত হোসেন জানান, আটক আসামী ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু প্রত্রিয়াধীন। অভিযান পরিচালনা করিয়া পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ভোলার মেঘনা নদী থেকে ৩ চাঁদাবাজকে গ্রেফতার করেছেন ডিবি পুলিশ

আপডেট সময় ০৯:৫৭:১১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩০ এপ্রিল ২০২৪

ভোলা সদর মডেল থানাধীন রাজাপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ কন্দকপুর গ্রামের গোলপাড় নামক নদীর পাড় থেকে ৩ চাঁদাবাজ কে গ্রেফতার করেছে ভোলা জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি)।

 

সোমবার (২৯ এপ্রিল) সকাল ১১ টায় জেলা গোয়েন্দা শাখা, ভোলার এসআই (নিঃ)/মোঃ আসাদুজ্জামান খান এর নেতৃেত্ব একটি চৌকস দল ভোলা সদর মডেল থানাধীন রাজাপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডস্থ কন্দকপুর সাকিনের গোলপাড় নামক নদীর পাড়ে অভিযান পরিচালনা করে পূর্ব ইলিশা ১নং ওয়ার্ডের কালাপোল এর বাসিন্দা মোঃ জহুর আহেম্মদ মাঝির ছেলে মোঃ তারেক (২০), পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সুদেরহাট এলাকার বাসিন্দা ইউনুছ দালাল এর ছেলে আল-আমিন (১৯), পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের চুইজ গেইট এলাকার বাসিন্দা রশিদ মাঝির ছেলে মোঃ মনির (২০) কে গ্রেফতার করে।

আটকৃতদের কাছ থেকে একটি ইঞ্জিন চালিত নৌকা, ৫০০০ মিটার মাছ ধরার জাল জব্দ করা হয়।

জেলা গোয়েন্দা সংস্থা সূত্রে জানা যায় যে, গ্রেফতারকৃত আসামী ও তাদের পলাতক সহযোগী আসামীরা মেঘনা নদীতে বিভিন্ন সময়ে চুরি, ছিনতাই সহ নিরিহ জেলেদের জিম্মি করে চাঁদাদাবী সহ বিভিন্ন মালামাল লুট করিয়া থাকে। তারাই ধারাবাহিকতায় মেঘনা নদীতে সাইদুল ইসলাম (২৬), মোঃ মানিক হোসেন গোলদার (৪০) নামের ২ জেলেকে জিম্মি করে চাঁদাদাবী সহ মাছ ধরার জাল চুরি করাকালীন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলা গোয়েন্দা শাখা, ভোলা টিম তাদেরকে আটক করে এবং জিম্মি দশা থেকে ২ জন ভিকটিম কে উদ্ধার করে।

জেলা গোয়েন্দা সংস্থা (জিবি)’র অফিসার ইনচার্জ এনায়েত হোসেন জানান, আটক আসামী ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু প্রত্রিয়াধীন। অভিযান পরিচালনা করিয়া পলাতক আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।