ঢাকা ০৫:১৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

ফিলিস্তিনে একদিনে আরও ৪০ জনকে হত্যা, আটক ৩০

একদিনে আরও ৪০ ফিলিস্তিনিকে হত্যা এবং ৩০ জনকে আটক করেছে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী। গত ২৪ ঘণ্টায় গাজা ও পশ্চিম তীরে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর পৃথক অভিযানে তাদের হত্যা ও আটক করা হয়। এসময় আহত হন অনেকে।

সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ নিয়ে গত ৭ অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৭ হাজার ১২৪ জনে দাঁড়িয়েছে। সেইসঙ্গে আহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৪ হাজার ৭১২ জনে।

এক বিবৃতিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বহু সংখ্যক মানুষ এখনো ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় আটকা পড়ে আছে, কারণ উদ্ধারকারীরা এখনো তাদের কাছে পৌঁছাতে পারছে না।

অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির দাবিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের একটি প্রস্তাব সত্ত্বেও ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে নৃশংস হত্যাযজ্ঞ অব্যাহত রেখেছে ইসরাইলি বাহিনী।

গত ৭ অক্টোবর হামাসের হামলার পর থেকে হামাস-ইসরাইল যুদ্ধের দীর্ঘ আট মাসে গাজার বিস্তীর্ণ অঞ্চল খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি এবং ওষুধের অবরোধের মুখে ধ্বংসস্তূপে পরিণিত হয়েছে।

ইসরাইল আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে গণহত্যার দায়ে অভিযুক্ত। যার সর্বশেষ রায়ে তেল আবিবকে অবিলম্বে দক্ষিণ শহর রাফাহ-তে সমস্ত তৎপরতা বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সূত্র: আনাদোলু এজেন্সি।

 

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

পুলিশে আরও রদবদল, এক অতিরিক্ত আইজিপি ও ৯ ডিআইজি বদলি

ফিলিস্তিনে একদিনে আরও ৪০ জনকে হত্যা, আটক ৩০

আপডেট সময় ১২:২৭:৪৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

একদিনে আরও ৪০ ফিলিস্তিনিকে হত্যা এবং ৩০ জনকে আটক করেছে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী। গত ২৪ ঘণ্টায় গাজা ও পশ্চিম তীরে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর পৃথক অভিযানে তাদের হত্যা ও আটক করা হয়। এসময় আহত হন অনেকে।

সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এ নিয়ে গত ৭ অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৭ হাজার ১২৪ জনে দাঁড়িয়েছে। সেইসঙ্গে আহতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৪ হাজার ৭১২ জনে।

এক বিবৃতিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বহু সংখ্যক মানুষ এখনো ধ্বংসস্তূপের নিচে এবং রাস্তায় আটকা পড়ে আছে, কারণ উদ্ধারকারীরা এখনো তাদের কাছে পৌঁছাতে পারছে না।

অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির দাবিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের একটি প্রস্তাব সত্ত্বেও ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে নৃশংস হত্যাযজ্ঞ অব্যাহত রেখেছে ইসরাইলি বাহিনী।

গত ৭ অক্টোবর হামাসের হামলার পর থেকে হামাস-ইসরাইল যুদ্ধের দীর্ঘ আট মাসে গাজার বিস্তীর্ণ অঞ্চল খাদ্য, বিশুদ্ধ পানি এবং ওষুধের অবরোধের মুখে ধ্বংসস্তূপে পরিণিত হয়েছে।

ইসরাইল আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে গণহত্যার দায়ে অভিযুক্ত। যার সর্বশেষ রায়ে তেল আবিবকে অবিলম্বে দক্ষিণ শহর রাফাহ-তে সমস্ত তৎপরতা বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সূত্র: আনাদোলু এজেন্সি।