ঢাকা ০১:৪৩ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রেমের ফাঁদে ফেলে আপত্তিকর ছবি-ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল, নিরাপত্তাহীনতায় তরুণী

ব্যাংকে কর্মরত এক তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করে বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগ উঠেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের কোরিয়া প্রবাসী তরুণ আকমাম হোসেনের বিরুদ্ধে। দেড় বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার পরেও ওই তরুণীর বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি তার আত্বীয় স্বজন ও সহকর্মীদের দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগ করছেন তিনি।

অভিযুক্ত যুবক চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরের আরামবাগ এলাকার মো. আব্দুল ওয়াফির ছেলে কোরিয়া প্রবাসী আকমাম হোসেন। এ ঘটনায় দুই দফায় ওই তরুণী আকমামের বাসায় এসে অভিযোগ দিলেও মেলেনি সমাধান। গত শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) ঢাকা থেকে আকমামের বাসায় যান ওই তরুণী। এসময় তার পরিবারের সদস্যদেরকে আকমামের এসব কর্মকান্ডের বিষয়ে অভিযোগ দেন ওই তরুণী।

প্রবাসী আকমামের পরিবার দ্বিতীয় দফায় আর এমন কর্মকান্ড না ঘটার প্রতিশ্রুতি দিলে ফিরে যান তরুণী। তবে বারবার এমন প্রতিশ্রুতির পরেও ব্ল্যাকমেইলের ঘটনায় আতঙ্কিত তরুণী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানান।

ভুক্তভোগী তরুণী ও বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কোরিয়া প্রবাসী আকমাম ও ঢাকায় কর্মরত একটি ব্যাংকের এক নারী কর্মকর্তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের পর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তাদের। এই সম্পর্ক চলে প্রায় দেড় বছর। এরপর বনিবনা না হওয়ায় বিচ্ছেদ ঘটে সম্পর্কের। তবে সম্পর্ক ছিন্ন হলেও প্রেমচলাকালীন সময়ের বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করতে থাকে আকমল।

গত শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) আকমামের বাসায় আসেন ওই তরুণী। এসময় তার মাসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরকে তাকে ব্ল্যাকমেইল ও হুমকি দেখার বিষয়ে অভিযোগ করেন তিনি। পরে তাকে আর এমন ঘটনা আর হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয় আকমামের মা ও তার পরিবারের সদস্যরা।

ভুক্তভোগী তরুণী বলেন, আকমামের সাথে আমার দেড় বছরের সম্পর্ক ছিল। এমনকি সে আমাকে দেশে ফিরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয়। কিন্তু সম্পর্ক বিছিন্ন করে তার কাছে থাকা বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও আমার আত্বীয়-স্বজন ও সহকর্মীদের দিচ্ছে এবং নানাভাবে হয়রানী করছে। এর আগেও এক মাস আগে একই অভিযোগ নিয়ে তার বাসায় উপস্থিত হয়ে পরিবারের নিকট জানায়। কিন্তু কোন সুরাহা না করে উল্টো আকমামের মামা বিভিন্নভাবে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখায়।

তিনি আরও বলেন, একবার বাসায় গিয়ে অভিযোগ দিয়ে সুরাহা না পেয়ে আবারও একই অভিযোগ নিয়ে গত শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) তার বাসায় যায়। এবারও আর এমন কিছু না হওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় আকমলের মা ও তার পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু তাতেও আমি নিশ্চিত হতে পারিনি। সে আমার সম্মানহানি করেই যাচ্ছে। এনিয়ে আমি তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব এবং তার প্রস্তুতি নিয়েছি। একসাথে একাধিক নারীর সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে।

এদিকে, প্রেমের সম্পর্ক থাকার কথা স্বীকার করলেও তরুণীর সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন কোরিয়া প্রবাসী আকমাম হোসেন। মুঠোফোনে তিনি বলেন, আমি নয়, বরং সেই নারীই আমাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে। এমনকি আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ করেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

এবিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিন্টু রহমান, এবিষয়ে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রেমের ফাঁদে ফেলে আপত্তিকর ছবি-ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল, নিরাপত্তাহীনতায় তরুণী

আপডেট সময় ০১:৪৯:০৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

ব্যাংকে কর্মরত এক তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করে বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগ উঠেছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের কোরিয়া প্রবাসী তরুণ আকমাম হোসেনের বিরুদ্ধে। দেড় বছরের প্রেমের সম্পর্ক ছিন্ন হওয়ার পরেও ওই তরুণীর বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি তার আত্বীয় স্বজন ও সহকর্মীদের দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করার অভিযোগ করছেন তিনি।

অভিযুক্ত যুবক চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহরের আরামবাগ এলাকার মো. আব্দুল ওয়াফির ছেলে কোরিয়া প্রবাসী আকমাম হোসেন। এ ঘটনায় দুই দফায় ওই তরুণী আকমামের বাসায় এসে অভিযোগ দিলেও মেলেনি সমাধান। গত শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) ঢাকা থেকে আকমামের বাসায় যান ওই তরুণী। এসময় তার পরিবারের সদস্যদেরকে আকমামের এসব কর্মকান্ডের বিষয়ে অভিযোগ দেন ওই তরুণী।

প্রবাসী আকমামের পরিবার দ্বিতীয় দফায় আর এমন কর্মকান্ড না ঘটার প্রতিশ্রুতি দিলে ফিরে যান তরুণী। তবে বারবার এমন প্রতিশ্রুতির পরেও ব্ল্যাকমেইলের ঘটনায় আতঙ্কিত তরুণী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানান।

ভুক্তভোগী তরুণী ও বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে কোরিয়া প্রবাসী আকমাম ও ঢাকায় কর্মরত একটি ব্যাংকের এক নারী কর্মকর্তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের পর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তাদের। এই সম্পর্ক চলে প্রায় দেড় বছর। এরপর বনিবনা না হওয়ায় বিচ্ছেদ ঘটে সম্পর্কের। তবে সম্পর্ক ছিন্ন হলেও প্রেমচলাকালীন সময়ের বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করতে থাকে আকমল।

গত শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) আকমামের বাসায় আসেন ওই তরুণী। এসময় তার মাসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরকে তাকে ব্ল্যাকমেইল ও হুমকি দেখার বিষয়ে অভিযোগ করেন তিনি। পরে তাকে আর এমন ঘটনা আর হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেয় আকমামের মা ও তার পরিবারের সদস্যরা।

ভুক্তভোগী তরুণী বলেন, আকমামের সাথে আমার দেড় বছরের সম্পর্ক ছিল। এমনকি সে আমাকে দেশে ফিরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দেয়। কিন্তু সম্পর্ক বিছিন্ন করে তার কাছে থাকা বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও আমার আত্বীয়-স্বজন ও সহকর্মীদের দিচ্ছে এবং নানাভাবে হয়রানী করছে। এর আগেও এক মাস আগে একই অভিযোগ নিয়ে তার বাসায় উপস্থিত হয়ে পরিবারের নিকট জানায়। কিন্তু কোন সুরাহা না করে উল্টো আকমামের মামা বিভিন্নভাবে হুমকি ও ভয়ভীতি দেখায়।

তিনি আরও বলেন, একবার বাসায় গিয়ে অভিযোগ দিয়ে সুরাহা না পেয়ে আবারও একই অভিযোগ নিয়ে গত শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) তার বাসায় যায়। এবারও আর এমন কিছু না হওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয় আকমলের মা ও তার পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু তাতেও আমি নিশ্চিত হতে পারিনি। সে আমার সম্মানহানি করেই যাচ্ছে। এনিয়ে আমি তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব এবং তার প্রস্তুতি নিয়েছি। একসাথে একাধিক নারীর সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে।

এদিকে, প্রেমের সম্পর্ক থাকার কথা স্বীকার করলেও তরুণীর সকল অভিযোগ অস্বীকার করেন কোরিয়া প্রবাসী আকমাম হোসেন। মুঠোফোনে তিনি বলেন, আমি নয়, বরং সেই নারীই আমাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে। এমনকি আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ করেছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।

এবিষয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিন্টু রহমান, এবিষয়ে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।