ঢাকা ০৬:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

রমজানের শেষ দশকে রাসুলের ৬ টি কাজ মনে করিয়ে দিলেন শায়খ আহমাদুল্লাহ

রমজানের শেষ দশকে রাসুলের ৬ টি কাজ মনে করিয়ে দিলেন শায়খ আহমাদুল্লাহ
রমজানের শেষ দশক শুরু হয়ে গেছে। রহমত, মাগফিরাতের পর নাজাতের দশক চলছে। রমজানের শেষ দশ দিনে রাসুল (সা.) ছয়টি কাজ বেশি বেশি করতেন। সেগুলো মনে করিয়ে দিয়ে সবাইকে তা অনুস্মরণের আহ্বান জানিয়েছেন আসসুন্নাহ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন শায়খ আহমাদুল্লাহ।

রাসুল যা করতেন-
এক. ইতিকাফ করতেন।
দুই. জীবনের অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি ইবাদত সাধনায় রত থাকতেন।
তিন. রাত্রি জাগরণ করতেন।
চার. পরিবারকে ঘুম থেকে ডেকে তুলতেন।
পাঁচ. কোমর বেঁধে ইবাদতে মগ্ন হতেন।
ছয়. লাইলাতুল কদর খোঁজার আশায় শেষ দশ রাতে (বিশেষত বেজোড় রাতগুলোতে) ইবাদত করতেন।

শায়খ আহমাদুল্লাহ বলেন, রমজানের শেষ দশক মহাসৌভাগ্যের বার্তা নিয়ে আমাদের মাঝে উপস্থিত হয়। এই সৌভাগ্য লাভ করতে হলে আমাদেরকে ইবাদত ও রাত্রি জাগরণের পেছনে সর্বশক্তি ব্যয় করতে হবে। ঈদের কেনাকাটা এবং গ্রামের বাড়ি যাওয়ার প্রস্তুতি যেন আমাদের শেষ দশকের ইবাদতে বাধা সৃষ্টি না করে। আল্লাহ তাওফীক দান করুন, আমীন।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

জাফলং সহ গোয়াইনঘাটের সবকটি পর্যটন কেন্দ্র খুলে দেওয়া হল

রমজানের শেষ দশকে রাসুলের ৬ টি কাজ মনে করিয়ে দিলেন শায়খ আহমাদুল্লাহ

আপডেট সময় ১১:৫৫:২৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

রমজানের শেষ দশকে রাসুলের ৬ টি কাজ মনে করিয়ে দিলেন শায়খ আহমাদুল্লাহ
রমজানের শেষ দশক শুরু হয়ে গেছে। রহমত, মাগফিরাতের পর নাজাতের দশক চলছে। রমজানের শেষ দশ দিনে রাসুল (সা.) ছয়টি কাজ বেশি বেশি করতেন। সেগুলো মনে করিয়ে দিয়ে সবাইকে তা অনুস্মরণের আহ্বান জানিয়েছেন আসসুন্নাহ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন শায়খ আহমাদুল্লাহ।

রাসুল যা করতেন-
এক. ইতিকাফ করতেন।
দুই. জীবনের অন্য যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি ইবাদত সাধনায় রত থাকতেন।
তিন. রাত্রি জাগরণ করতেন।
চার. পরিবারকে ঘুম থেকে ডেকে তুলতেন।
পাঁচ. কোমর বেঁধে ইবাদতে মগ্ন হতেন।
ছয়. লাইলাতুল কদর খোঁজার আশায় শেষ দশ রাতে (বিশেষত বেজোড় রাতগুলোতে) ইবাদত করতেন।

শায়খ আহমাদুল্লাহ বলেন, রমজানের শেষ দশক মহাসৌভাগ্যের বার্তা নিয়ে আমাদের মাঝে উপস্থিত হয়। এই সৌভাগ্য লাভ করতে হলে আমাদেরকে ইবাদত ও রাত্রি জাগরণের পেছনে সর্বশক্তি ব্যয় করতে হবে। ঈদের কেনাকাটা এবং গ্রামের বাড়ি যাওয়ার প্রস্তুতি যেন আমাদের শেষ দশকের ইবাদতে বাধা সৃষ্টি না করে। আল্লাহ তাওফীক দান করুন, আমীন।