ঢাকা ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জায়গীরহাট আব্দুর রহমান স্কুল এন্ড কলেজের মৌলভী শিক্ষক গণমাধ্যম কর্মী কে লাঞ্ছিত ও কোদাল দিয়ে নাক কর্তন করলো স্থানীয় এক জনতার

রংপুরের মিঠাপুকুরের উপজেলার ৬নং কাফ্রিখাল ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বুজরুক তাজপুর গ্রামের  মাওলানা শাহানত আলীর ছেলে জায়গীরহাট আব্দুর রহমান স্কুল এন্ড কলেজের মৌলভী শিক্ষক মাওলানা ফারুকুল ইসলাম অদ্য দুপুর একটার দিকে সরকারি রাস্তার মাটি কাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীর নাক নোরল হকের নাকে চোট মারে ক্ষতবিক্ষত করে।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়,মাওলানা ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ইতি পূর্বে নানান অভিযোগ আছে এলাকায় কাউকে মানতে চায় না বেশ কয়েক জনকে মারপিট এবং গণমাধ্যম কর্মীকে লাঞ্ছিত করার ঘটনাও এই মৌলবি শিক্ষক করে আসছে। আহত নোরল হকের বড়ভাই শামসুল ইসলাম দৈনিক আমাদের মাতৃভূমি নিশ্চিত করেন,এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে রয়েছে ডজনে ডজন অভিযোগ এর শুরুহা ও বিচার হওয়া দরকার।আজকের ঘটনা সামান্য মাটি কে কেন্দ্র করে একজন শিক্ষক এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে তা আমার বোধগম্য নয়।এদিকে আহত নুরুল ইসলাম এর ছেলে মোহাম্মদ ইশতিয়াক বলেন আমার বাবা কোন অপরাধ করেনি তারপরেও এই শিক্ষক আমার বাবার নাক কেটে দিয়েছে ইতিপূর্বেই অনেক জনকে মেরেছে এর বিচার চাই।

স্থানীয় সূত্রের জানা যায়, কিছুদিন পূর্বে তার নিজের পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত পুকুর থেকে রাস্তায় মাঠি ফেলেন আর সেই রাস্তার মাটি তার নিজের ঘরের পিরালী কোদাল দিয়ে বাধতে থাকেন পার্শ্ববর্তী জেঠুর ছেলে মুদি দোকানদার নুরুল ইসলাম বাধা দিলে একপর্যায়ে ধস্তাধস্তি পরবর্তীতে উক্ত মৌলভী শিক্ষক নুরুল ইসলামের নাকে সজরে আঘাত করেনর রক্তাক্ত অবস্থায় বর্তমানে তিনি মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসাধীন আছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ৬ নং কাফ্রিখাল ইউনিয়নের বিট পুলিশ অফিসার এসআই মনোয়ারুল ইসলাম তিনি দৈনিক আমাদের মাতৃভূমিকে জানায়,সংবাদ সোনার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনা স্থলে পুলিশ গিয়েছে এলাকায় যাতে কেউ অপ্রীতিকর বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে পুলিশ সজাগ আছে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

জায়গীরহাট আব্দুর রহমান স্কুল এন্ড কলেজের মৌলভী শিক্ষক গণমাধ্যম কর্মী কে লাঞ্ছিত ও কোদাল দিয়ে নাক কর্তন করলো স্থানীয় এক জনতার

আপডেট সময় ০৫:১০:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০২৪

রংপুরের মিঠাপুকুরের উপজেলার ৬নং কাফ্রিখাল ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বুজরুক তাজপুর গ্রামের  মাওলানা শাহানত আলীর ছেলে জায়গীরহাট আব্দুর রহমান স্কুল এন্ড কলেজের মৌলভী শিক্ষক মাওলানা ফারুকুল ইসলাম অদ্য দুপুর একটার দিকে সরকারি রাস্তার মাটি কাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিবেশীর নাক নোরল হকের নাকে চোট মারে ক্ষতবিক্ষত করে।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়,মাওলানা ফখরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ইতি পূর্বে নানান অভিযোগ আছে এলাকায় কাউকে মানতে চায় না বেশ কয়েক জনকে মারপিট এবং গণমাধ্যম কর্মীকে লাঞ্ছিত করার ঘটনাও এই মৌলবি শিক্ষক করে আসছে। আহত নোরল হকের বড়ভাই শামসুল ইসলাম দৈনিক আমাদের মাতৃভূমি নিশ্চিত করেন,এই শিক্ষকের বিরুদ্ধে রয়েছে ডজনে ডজন অভিযোগ এর শুরুহা ও বিচার হওয়া দরকার।আজকের ঘটনা সামান্য মাটি কে কেন্দ্র করে একজন শিক্ষক এ ধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে তা আমার বোধগম্য নয়।এদিকে আহত নুরুল ইসলাম এর ছেলে মোহাম্মদ ইশতিয়াক বলেন আমার বাবা কোন অপরাধ করেনি তারপরেও এই শিক্ষক আমার বাবার নাক কেটে দিয়েছে ইতিপূর্বেই অনেক জনকে মেরেছে এর বিচার চাই।

স্থানীয় সূত্রের জানা যায়, কিছুদিন পূর্বে তার নিজের পৈত্রিক সূত্রে প্রাপ্ত পুকুর থেকে রাস্তায় মাঠি ফেলেন আর সেই রাস্তার মাটি তার নিজের ঘরের পিরালী কোদাল দিয়ে বাধতে থাকেন পার্শ্ববর্তী জেঠুর ছেলে মুদি দোকানদার নুরুল ইসলাম বাধা দিলে একপর্যায়ে ধস্তাধস্তি পরবর্তীতে উক্ত মৌলভী শিক্ষক নুরুল ইসলামের নাকে সজরে আঘাত করেনর রক্তাক্ত অবস্থায় বর্তমানে তিনি মিঠাপুকুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসাধীন আছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ৬ নং কাফ্রিখাল ইউনিয়নের বিট পুলিশ অফিসার এসআই মনোয়ারুল ইসলাম তিনি দৈনিক আমাদের মাতৃভূমিকে জানায়,সংবাদ সোনার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনা স্থলে পুলিশ গিয়েছে এলাকায় যাতে কেউ অপ্রীতিকর বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে পুলিশ সজাগ আছে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।