ঢাকা ০৯:২৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফরিদপুরে স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ১

ফরিদপুরের মধুখালীতে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ মামলার আসামি সোহান ওরফে টেরা সোহানকে (২৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০।

বুধবার (১৯ জুন) সকাল সাড়ে ৬টায় মাগুরা জেলার শ্রীপুরের নাকোল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সোহান মধুখালী উপজেলার গোন্দারদিয়া গ্রামের শাহ আলমের ছেলে।

র‌্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ফরিদপুরের মধুখালী এলাকার সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রী গত ২৮ মে সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে বাসা থেকে বের হবার পর নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা মধুখালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। নিখোঁজের ৬ দিন পর (২ জুন) মধুখালীর একটি বাজার থেকে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারের পর ওই স্কুলছাত্রী স্বজনদের কাছে জানায়- জোরপূর্বক তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ১ জুন রাতে তুহিনসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজন তাকে তুহিনের বাড়িতে নিয়ে যায়। তুহিন, সোহান ও অন্তর মিলে তাকে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে। অসুস্থ অবস্থায় গত ২ জুন তাকে স্থানীয় একটি বাজারে ফেলে যায় ধর্ষণকারীরা।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এ ঘটনায় মধুখালী থানায় সোহান, অন্তর ও তুহিনসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে অপহরণ ও গণধর্ষণ মামলা করে স্কুলছাত্রীর পরিবার। মামলার পর থেকেই আসামিরা আত্মগোপনে চলে যায়। এরপরই আসামি গ্রেফতার করতে অভিযান শুরু করে র‌্যাব। অভিযানের অংশ হিসেবে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার সকালে মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানার নাকোল এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় মামলার অন্যতম আসামি টেরা সোহানকে।

 

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ফরিদপুরে স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ, গ্রেফতার ১

আপডেট সময় ১২:০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪

ফরিদপুরের মধুখালীতে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ মামলার আসামি সোহান ওরফে টেরা সোহানকে (২৫) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০।

বুধবার (১৯ জুন) সকাল সাড়ে ৬টায় মাগুরা জেলার শ্রীপুরের নাকোল এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সোহান মধুখালী উপজেলার গোন্দারদিয়া গ্রামের শাহ আলমের ছেলে।

র‌্যাবের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ফরিদপুরের মধুখালী এলাকার সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রী গত ২৮ মে সকালে স্কুলে যাওয়ার পথে বাসা থেকে বের হবার পর নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর বাবা মধুখালী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। নিখোঁজের ৬ দিন পর (২ জুন) মধুখালীর একটি বাজার থেকে ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারের পর ওই স্কুলছাত্রী স্বজনদের কাছে জানায়- জোরপূর্বক তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ১ জুন রাতে তুহিনসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজন তাকে তুহিনের বাড়িতে নিয়ে যায়। তুহিন, সোহান ও অন্তর মিলে তাকে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে। অসুস্থ অবস্থায় গত ২ জুন তাকে স্থানীয় একটি বাজারে ফেলে যায় ধর্ষণকারীরা।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এ ঘটনায় মধুখালী থানায় সোহান, অন্তর ও তুহিনসহ অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে অপহরণ ও গণধর্ষণ মামলা করে স্কুলছাত্রীর পরিবার। মামলার পর থেকেই আসামিরা আত্মগোপনে চলে যায়। এরপরই আসামি গ্রেফতার করতে অভিযান শুরু করে র‌্যাব। অভিযানের অংশ হিসেবে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার সকালে মাগুরা জেলার শ্রীপুর থানার নাকোল এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয় মামলার অন্যতম আসামি টেরা সোহানকে।