ঢাকা ০৮:৫৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাটোরের সিংড়ায় আল- হেরা ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু

নাটোরের সিংড়ায় আল- হেরা ক্লিনিকে অপচিকিৎসায় লিটন হাসান (২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল ০২ সেপ্টেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় লিটন হাসান কে চিকিৎসার জন্য উপজেলার আল- হেরা ক্লিনিকে ভর্তি করা হলে তাহাকে চিকিৎসা দেওয়ায় সে শারিরীক ভাবে আরও অসুস্থ হয়ে পরে, পরে ০৩. সেপ্টেম্বর (রবিবার) সকালে তাহাকে আল- হেরা ক্লিনিক হতে তাকে দ্রুত নাটোর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা লিটনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

নিহত লিটন হাসান এর আত্তিয় স্বজনরা জানায় আল-হেরা ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়েছে হয়তো সেখানে মারা যাওয়ার পরে তাহাকে রেফার্ড করা হয়েছে। নিহত লিটন হাসান হার্নিয়া রোগে আক্রান্ত ছিলেন।

নিহত লিটন হাসান নাটোর জেলার বরাইগ্রাম উপজেলার মাড়িয়া গ্রামের জাফর আলীর ছেলে।

সিংড়া থানা পুলিশ সুত্রে জানা যায়, বিষয়টি জানার পরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে কিন্ত রুগী ও রুগীর পরিবারের কাউকে পায়নাই।এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোন লিখিত অভিযোগ হয় নাই।তবে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ।

জানা যায়,এর আগেও এমন ভুল চিকিৎসায় উপজেলার বড় চৌগ্রাম গ্রামের অটো চালক আরিফুল ইসলাম এর স্ত্রী পুবালী বেগম নামে এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছিল।

নিহতের স্বামী আরিফুল ইসলাম জানান, ক্লিনিকের ডাক্তার তার স্ত্রীর জন্য চার ব্যাগ রক্ত নিয়েছে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ করে তারা তার স্ত্রীকে রাজশাহী নিতে বলে। এসময় কি হয়েছে জানতে চাইলে ওই ক্লিনিক থেকে বলা হয়। রক্ত বন্ধ করার জন্য রাজশাহী যেতে হবে। ক্লিনিকের লোকজন নিজেরাই অ্যাম্বুলেন্স ঠিক করে দেয়। আর শতভাগ ভুল চিকিৎসায় তার স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। আল-হেরা ক্লিনিকের স্বত্বাধিকারী ডাঃ আব্দুল আহাদ অস্ত্রোপাচার করেছিলেন।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

নাটোরের সিংড়ায় আল- হেরা ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যু

আপডেট সময় ১০:০৬:০০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

নাটোরের সিংড়ায় আল- হেরা ক্লিনিকে অপচিকিৎসায় লিটন হাসান (২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

গতকাল ০২ সেপ্টেম্বর শনিবার সন্ধ্যায় লিটন হাসান কে চিকিৎসার জন্য উপজেলার আল- হেরা ক্লিনিকে ভর্তি করা হলে তাহাকে চিকিৎসা দেওয়ায় সে শারিরীক ভাবে আরও অসুস্থ হয়ে পরে, পরে ০৩. সেপ্টেম্বর (রবিবার) সকালে তাহাকে আল- হেরা ক্লিনিক হতে তাকে দ্রুত নাটোর সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা লিটনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

নিহত লিটন হাসান এর আত্তিয় স্বজনরা জানায় আল-হেরা ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় তার মৃত্যু হয়েছে হয়তো সেখানে মারা যাওয়ার পরে তাহাকে রেফার্ড করা হয়েছে। নিহত লিটন হাসান হার্নিয়া রোগে আক্রান্ত ছিলেন।

নিহত লিটন হাসান নাটোর জেলার বরাইগ্রাম উপজেলার মাড়িয়া গ্রামের জাফর আলীর ছেলে।

সিংড়া থানা পুলিশ সুত্রে জানা যায়, বিষয়টি জানার পরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে কিন্ত রুগী ও রুগীর পরিবারের কাউকে পায়নাই।এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কোন লিখিত অভিযোগ হয় নাই।তবে লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন পুলিশ।

জানা যায়,এর আগেও এমন ভুল চিকিৎসায় উপজেলার বড় চৌগ্রাম গ্রামের অটো চালক আরিফুল ইসলাম এর স্ত্রী পুবালী বেগম নামে এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছিল।

নিহতের স্বামী আরিফুল ইসলাম জানান, ক্লিনিকের ডাক্তার তার স্ত্রীর জন্য চার ব্যাগ রক্ত নিয়েছে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে হঠাৎ করে তারা তার স্ত্রীকে রাজশাহী নিতে বলে। এসময় কি হয়েছে জানতে চাইলে ওই ক্লিনিক থেকে বলা হয়। রক্ত বন্ধ করার জন্য রাজশাহী যেতে হবে। ক্লিনিকের লোকজন নিজেরাই অ্যাম্বুলেন্স ঠিক করে দেয়। আর শতভাগ ভুল চিকিৎসায় তার স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। আল-হেরা ক্লিনিকের স্বত্বাধিকারী ডাঃ আব্দুল আহাদ অস্ত্রোপাচার করেছিলেন।