ঢাকা ০৯:২০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডেঙ্গু এখনও নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দেশে ডেঙ্গু রোগী বাড়লেও এখনো তা নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি। এক্ষেত্রে জনগণকেই সচেতন হতে হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার (১০ জুলাই) ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৭৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজধানীর অনেক হাসপাতালে এখনো শয্যা খালি রয়েছে, তবে রোগী বাড়ছে। এ অবস্থায় প্রয়োজনে এক হাজার শয্যার ডিএনসিসি কোভিড হাসপাতালকে ডেঙ্গু ডেডিকেটেড করে দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

জাহিদ মালেক বলেন, আমরা আমাদের সব হাসপাতালে ডেঙ্গু চিকিৎসার ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিয়েছি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। রাজধানী ঢাকার সব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সর্বোচ্চসংখ্যক রোগী রয়েছে। কারণ ওই অঞ্চলে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেশি।

হাসপাতাল ডেডিকেট করা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ঢাকা মেডিকেল, সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন হাসপাতালে এখনো সিট খালি রয়েছে। অর্থাৎ রোগী বাড়লে এখনো তা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আমরা অন্যান্য হাসপাতালের পাশাপাশি মহাখালী ডিএনসিসি কোভিড-১৯ হাসপাতালেও রোগী ভর্তি করেছি। প্রয়োজনে ওই হাসপাতালকে ডেঙ্গু ডেডিকেটেড করে দেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, সরকার তো সব কাজ করে দিতে পারবে না। সিটি করপোরেশনের মাধ্যমে রাজধানীজুড়ে মশা নিধনে ওষুধ স্প্রে করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য বিভাগ রোগীদের সব ধরনের সেবা দিতে কাজ করে যাচ্ছে। চিকিৎসক-নার্সদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। আমরা নতুন করে ডেঙ্গু চিকিৎসায় গাইডলাইন তৈরি করে দিয়েছি। তবে মানুষকেও সচেতন হতে হবে। বহুতল ভবনের ছাদে এবং ভেতরে এডিস মশা জন্মাচ্ছে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

ডেঙ্গু এখনও নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় ১০:৩৮:১৯ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুলাই ২০২৩

দেশে ডেঙ্গু রোগী বাড়লেও এখনো তা নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি। এক্ষেত্রে জনগণকেই সচেতন হতে হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

সোমবার (১০ জুলাই) ঢাকা মেডিকেল কলেজের ৭৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

রাজধানীর অনেক হাসপাতালে এখনো শয্যা খালি রয়েছে, তবে রোগী বাড়ছে। এ অবস্থায় প্রয়োজনে এক হাজার শয্যার ডিএনসিসি কোভিড হাসপাতালকে ডেঙ্গু ডেডিকেটেড করে দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

জাহিদ মালেক বলেন, আমরা আমাদের সব হাসপাতালে ডেঙ্গু চিকিৎসার ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিয়েছি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন। রাজধানী ঢাকার সব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে মুগদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সর্বোচ্চসংখ্যক রোগী রয়েছে। কারণ ওই অঞ্চলে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেশি।

হাসপাতাল ডেডিকেট করা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ঢাকা মেডিকেল, সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন হাসপাতালে এখনো সিট খালি রয়েছে। অর্থাৎ রোগী বাড়লে এখনো তা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আমরা অন্যান্য হাসপাতালের পাশাপাশি মহাখালী ডিএনসিসি কোভিড-১৯ হাসপাতালেও রোগী ভর্তি করেছি। প্রয়োজনে ওই হাসপাতালকে ডেঙ্গু ডেডিকেটেড করে দেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, সরকার তো সব কাজ করে দিতে পারবে না। সিটি করপোরেশনের মাধ্যমে রাজধানীজুড়ে মশা নিধনে ওষুধ স্প্রে করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য বিভাগ রোগীদের সব ধরনের সেবা দিতে কাজ করে যাচ্ছে। চিকিৎসক-নার্সদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। আমরা নতুন করে ডেঙ্গু চিকিৎসায় গাইডলাইন তৈরি করে দিয়েছি। তবে মানুষকেও সচেতন হতে হবে। বহুতল ভবনের ছাদে এবং ভেতরে এডিস মশা জন্মাচ্ছে।