ভারতে মহানবী (স.) কে কটূক্তির প্রতিবাদে লক্ষ্য মুসলিমের বিক্ষোভে উত্তাল ভোলা

দৈনিক আমাদের মাতৃভূমি
১৮ জুন ২০২২, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন
Link Copied!

এম এন আলম, ব্যুরো প্রধান বরিশাল


মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির জ্যেষ্ঠ দুই নেতার কটূক্তির প্রতিবাদে ভোলায় প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদ । শুক্রবার (১৭ জুন) জুমার নামাজের পর শহরের কালি নাথ রায়ের বাজারের হাটখোলা জামে মসজিদের চত্বরে এ প্রতিবাদ সভা করেন। এসময় জেলার বিভিন্ন মসজিদ থেকে মিছিল নিয়ে হাজার হাজার মুসল্লীরা সভাস্থলে উপস্থিত হয়। সভা শেষে লক্ষ্যাদিক মুসলিমের অংশ গ্রহণে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করে তারা। মিছিলটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার হাটখোলা জামে মসজিদের সামনে গিয়ে শেষ হয়।


ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাওলানা আব্দুর রহমান খান তালুকদার এর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদ সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মুফতি ইয়াছিন নবীপুরী। ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদ সাধারণ সম্পাদক ভোলা দারুল হাদিস কামিল মাদরাসার (স্নাতকোত্তর) উপাধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা মোহাম্মদ মোবাশ্বিরুল হক নাঈম। মুসলিম ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি ও জাতীয় ইমাম সমিতি ভোলা জেলার সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা মীর মোঃ বেলায়েত হোসেন। ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদ যুগ্ম সম্পাদক ও জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ ভোলা জেলার সেক্রেটারি মাওলানা মোঃ মিজানুর রহমান। 


দৈনিক আজকের ভোলার সম্পাদক আলহাজ্ব মুহাম্মদ শওকাত হোসেন। মুসলিম ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি ও ভোলা জেলা ইসলামি আন্দোলন এর সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজী । ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মুফতি আহাম্মদ উল্লাহ। মুসলিম ঐক্য পরিষদের উপদেষ্টা আলহাজ্ব এম.ওবায়দুর রহমান বিন মোস্তফা। খলিফাপট্রি জামে মসজিদের খতিব আলহাজ্ব মাওলানা মোঃ মুজির উদ্দিন। বাংলাদেশ জমিয়াতুল মোদাররেছীন ভোলা সদর উপজেলা সভাপতি মাওলানা মোঃ আব্দুল লতিফ । ইসলামি ঐক্য আন্দোলনের সেক্রেটারি মোঃ শফিকুল ইসলাম। হোসাইনিয়া প্রি-ক্যাডেট মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোঃ আব্বাস উদ্দিন। খেলাফত মজলিস ভোলা জেলা সভাপতি মাওলানা আবু জাফর আব্দুল্লাহ। জাতীয় শিক্ষক ফোরাম ভোলা জেলার সহ-সভাপতি আলহাজ্ব মাওলানা আব্দুর রহমান চৌধুরী। বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি বরিশাল অঞ্চল সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ হাসান মিজানুর রহমান মিঠু প্রমূখ


প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বলেন, ধর্মীয় অপবাদ ছড়িয়ে ভারতীয় ক্ষমতাসীন দল বিজেপি একটি বিশেষ উদ্দেশ্য হাসিল করতে চায়। তাদের এমন কর্মকাণ্ড গোটা ভারতীয় উপমহাদেশে সাম্প্রসায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের স্পষ্ট পায়তারা। এছাড়া তারা সম্প্রীতির বাংলাদেশে হিন্দুত্ববাদী গোষ্ঠিকে উসকে দিয়ে হিন্দু-মুসলিমদের মধ্যে বিদ্যমান পারস্পারিক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চায়।


বক্তারা আরো বলেন, বিশ্ব মুসলিমদের হৃদয়ের স্পন্দন মহানবী (সা.) কে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য কোনো মুসলমানই মেনে নিতে পারে না। এসময় তাঁরা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রীয় ভাবে এর নিন্দা জানানোর জন্য । ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির নেত্রী নুপুর শর্মা কর্তৃক মহানবী (সাঃ) কে কটুক্তির দায়ে ভারত সরকারকে রাষ্ট্রীয় ভাবে ক্ষমা চাইতে হবে। এছাড়াও ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির দুই নেতার কটুক্তির প্রতিবাদে বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় ভাবে নিন্দা জানানোর দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।


সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহামানব মহানবী হজরত মোহাম্মদ (সা.) ও উম্মুল মুমিনীন হযরত আয়শা( রা.) কে নিয়ে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির মুখপাত্র নূপুর শর্মা ও দিল্লি শাখার গণমাধ্যম প্রধান নবীন কুমার জিন্দাল যে উদ্বত্যপূর্ণ মন্তব্য ও সীমালঙ্ঘন করেছে তাদের দ্রুত গ্রেফতার ও সর্ব্বোচ্চ শাস্তি এবং মুসলমানদের উপর নির্যাতন,ঘর-বাড়ী ভাঙ্গচুর,অগ্নিসংযোগ বন্ধের দাবি জানান । অন্যথায় ভারতের অভিমুখে লংমার্চ ঘোষণা করা হবে ‌‌। 


উল্লেখ্যঃ সম্প্রতি ভারতীয় একটি টেলিভিশন বিতর্কে অংশ নিয়ে মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) ও তার স্ত্রী আয়েশা (রা.) সম্পর্কে অবমাননাকর বক্তব্য দেন নুপুর শর্মা। পরে একই বিষয়ে টুইটারে পোস্ট দেন নাভিন কুমার জিন্দাল। এ নিয়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। ইতোমধ্যে এ ঘটনায় বিশ্বের অনেক মুসলিম দেশ প্রতিবাদ জানিয়েছেন।