বাপার্ড উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

দৈনিক আমাদের মাতৃভূমি
১৬ জুন ২০২২, ০৬:৫৭ অপরাহ্ন
Link Copied!

অনলাইন ডেস্ক


গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া বঙ্গবন্ধু দারিদ্র্য বিমোচন ও পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বাপার্ড) উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 


বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভার্চুয়াল প্লাটফরমে যুক্ত হয়ে বাপার্ডের উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাপার্ড গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া প্রান্তে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মশিউর রহমান শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। 


এ সময় বাপার্ড পরিচালনা বোর্ডের সিনিয়র সদস্য প্রধানমন্ত্রীর চাচা শেখ কবির হোসেন, এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ মহসিন, বাপার্ডের মহাপরিচালক সৈয়দ রবিউল আলম, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক চৌধুরী এমদাদুল হক, সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব আলী খান, কোটালীপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বিমল কৃষ্ণ বিশ্বাস, পৌর মেয়র হাজী মো. কামাল হোসেন শেখ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ভবেন্দ্রনাথ বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক আয়নাল হোসেন শেখসহ বাপার্ড, পুলিশ  প্রশাসনের পদস্থ কর্মকর্তা, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুলসংখ্যক নেতা উপস্থিত ছিলেন।


বাপার্ডের মহাপরিচালকের কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের অর্থায়নে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর ২৩৭ কোটি টাকা ব্যয়ে কোটালীপাড়ায় ৪০ একর জমির ওপর আধুনিক সুবিধাসংবলিত বাপার্ড বাস্তবায়ন করেছে। বাপার্ড প্রশিক্ষণ ও গবেষণার মাধ্যমে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিশাল জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থান এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রাখাবে। 


এ ছাড়া ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি, ক্ষুদ্র, কুটির শিল্প স্থাপনসহ কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে বাপার্ড পশ্চাৎপদ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চল থেকে ক্ষুধা, দারিদ্র্যতা চিরতরে দূর করবে। ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে ব্যাপক ভূমিকা রাখবে বাপার্ড।