ভাড়ারদহ বিলে অতিথি পাখির মেলা

দৈনিক আমাদের মাতৃভূমি
০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৩৮ অপরাহ্ন
Link Copied!

অর্ধশতাব্দী আগে হারিয়ে গিয়েছিল বিলটি। দখলমুক্ত করে বিল খননের পর বসেছে এখানে অতিথি পাখির মেলা। রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরশহরের পাশে ভাড়ারদহ বিলে গেলে এখন শোনা যাবে হরেক রকমের অতিথি পাখির কিচির-মিচির শব্দ। শব্দে মুখর পুরো বিল এলাকা। বিলের পাড়ে নানা প্রজাতির উদ্ভিদের বিপুল সমারোহ দেখে চোখ জুড়িয়ে যাবে। শীতপ্রধান দেশ থেকে ছুটে এসেছে নানা জাতের পাখির দল। স্থানীয়রাসহ আশপাশের অনেকেই বিলের সৌন্দর্য উপভোগের জন্য প্রতিদিন ছুটে আসছেন।

বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিনের অবহেলায় পড়ে থাকায় বিলটি এক সময় জলাভূমিতে পরিণত হয়। একপর্যায়ে স্থানীয়রা দখল করে বিলটিকে কৃষিভূমিতে পরিণত করে। অর্ধশতাব্দী পর এলাকাবাসী, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে এ বিলটি পুনর্খননের উদ্যোগ নেয় বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। নকশা দেখে বিলের সীমানা নির্ধারণ করা হয়। এরপর ভূ-উপরিস্থ পানির সর্বোত্তম ব্যবহার ও বৃষ্টির পানি সংরক্ষণের মাধ্যমে বৃহত্তর রংপুর জেলায় সেচ সম্প্রসারণ (ইআইআর) প্রকল্পের আওতায় ১১ দশমিক ৫৯ একরের এ বিলটি চলতি বছরের ১ জানুয়ারি খনন শুরু করা হয়। মার্চে খনন কাজ শেষ হলে বিল ফিরে পায় হারানো প্রাণ। এখন এ বিলে সকাল থেকে সন্ধ্যা অবধি ঝাঁকবাঁধা পাতি সরালি, জলময়ূর, চাপাখি, লরীয়তি, বন ভারত, খঞ্জনা, চাতক, টুনটুনি, ফিঙ্গে, বিভিন্ন প্রজাতির বক, ঘুঘু, শালিক, দোয়েল, মাছরাঙাসহ নানা প্রজাতির পাখির দেখা মিলছে। ৬০ থেকে ১০০ ফুট চওড়া বিলের দুই  পাড়ে সোনালু, কৃষ্ণচূড়া, জারুল, নাগেশ্বর, নাগলিঙ্গম, কুরচি, ছাতিম, কদম, চিকরাশি, শ্বেত চন্দন, বকুল, গন্ধরাজ, মহুয়া, শিমুল (বার্মিজ), দেশি শিমুল, পলাশ, কাঞ্চন, হিজল, অশোক, পারুল, তমাল, চাঁপা, করম, বাজনা, গৌরিচৌরি, রাধাচূড়া, কাঠমল্লিকা, মাধবীলতা, টগর, হৈমন্তী, ডুমুর, ঢেউয়া, খড়কি জাম, কোরিয়ান জাম, কতবেল, আঞ্জির, জাফরান, হরীতকী, আমলকী, পানিয়াল, গাব, ননিফল, বুদ্ধ নারিকেল, বিলম্বি, গামারি, কাইজেলিয়া, ইপিল, বাবলা, বওলা, জিগনিসহ শতাধিক প্রজাতির ফলদ, বনজ, ঔষধি ও ফুলের গাছ রোপণ করা হয়েছে। এ ছাড়া মাছ চাষও হচ্ছে।

বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রকল্প পরিচালক হাবিবুর রহমান খান বলেন, রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার জামুবাড়ী মৌজার এ বিলটি ‘ভাড়ারদহ’ বিল নামে পরিচিত। বদরগঞ্জ উপজেলা দিয়ে প্রবাহিত চিকলী ও গডডাংগী নদীর মিলনস্থল বা ঘূর্ণিময় অংশ ছিল এ ভাড়ারদহ বিল। চিকলী নদীর প্রবাহ পরিবর্তনের ফলে এ অংশটি বিলে পরিণত হয়। একপর্যায়ে বিলটি শুকিয়ে গেলে স্থানীয়রা কৃষি জমি হিসেবে ব্যবহার শুরু করে।  চলতি বছর বিলের জমি উদ্ধার করে খনন করা হয়। বিলের ধারে বিভিন্ন ধরনের গাছ রোপণ করা হয়েছে। বিলটি এখন অতিথি পাখিদের নিরাপদ আশ্রয়স্থলে পরিণত হয়েছে।



আমাদের মাতৃভূমি