৭৪ জন যাত্রী নিয়ে শাহজালালে বিমান জরুরি অবতরণ

দৈনিক আমাদের মাতৃভূমি
১৮ জুন ২০২২, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন
Link Copied!

বিশেষ প্রতিনিধি 

কারিগরি ত্রুটিত কারণে হযর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি  উড়োজাহাজ ৭৪ জন যাত্রী নিয়ে আজ শাহজালাল বিমানবন্দর  জরুরি অবতরণ করেছে। আজ শুক্রবার  দুপুর আড়াইটার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে  উড়োজাহাজটি  নিরাপদে অবতরণ করে। পাইলটের বুদ্বিমত্তার কারণে অল্পের জন্য ওই বিমানের যাত্রীরা বড় ধরনের দুর্ঘটনা  কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে।


আজ রাতে নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক শাহজালাল বিমানবন্দরে কর্মরত এক দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বাসসকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বিমানবন্দর সূত্রে জানা যায়,  শুক্রবার দুপুরে বরিশাল থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ড্যাশ-৮ কিউ-৪০০ মডেলের বিমানটি ঢাকায় আসার সময় হঠাৎ করে এতে কারিগরি ত্রুটি দেখা দেয়। ফলে যাত্রী বহন করা উড়োজাহাজকে জরুরি অবতরণ করাতে চান বিমানের কর্তব্যরত পাইলট। পরে কোন উপায় না পেয়ে পাইলট হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইটটি নিরাপদে অবতরণ করাতে সক্ষম হয়।

এদিকে, বিমানবন্দরে উড়োজাহাজ জরুরী অবতরনের খবর পেয়ে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ আগে থেকেই ফায়ার সার্ভিসের ইউনিট ও কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স বিমানবন্দরে প্রস্তুত রাখেন।  যেকোনো সমস্যা মোকাবেলার জন্য  এই ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন করা  হয়। তবে,  নিরাপদে ফ্লাইটটি অবতরণ করায় কোনো ধরনের ক্ষতি হয়নি। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিমানটির ল্যান্ডিং গিয়ারে ত্রুটি থাকায় ফ্লাইটটি জরুরি অবতরণের সিদ্ধান্ত নেন পাইলট। জরুরি অবতরণের পরই হার্ড ব্রেক করেন তিনি। পরে এটিকে পার্কিংয়ে নেওয়া হয়। এরপর নিরাপদে সব যাত্রীদের নামানো হয়।

এদিকে,  শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম জানান, বিমানের বরিশাল থেকে ঢাকাগামী একটি ফ্লাইট জরুরি অবতরণ করেছে। আলহামদুলিল্লাহ সব যাত্রীরা নিরাপদ ও অক্ষত আছেন। তেমন কোনো সমস্যা হয়নি। ওই  বিমানের যাত্রীসহ একাধিক যাত্রী জানান, ফ্লাইটটি অবতরণের পর পাইলট আমাদের জানান, ল্যান্ডিং গিয়ার ‘আউট অব অর্ডার’ (বিকল/অকেজো) থাকায় ফ্লাইটটি পুশকার্টের মাধ্যমে পার্কিং এলাকায় নেওয়া হচ্ছে। বিমানটির ল্যান্ডিং গিয়ারে ত্রুটির কারণে পাইলট জরুরি অবতরণের সিদ্ধান্ত নেয়। 

অপরদিকে, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম  বিমানবন্দরে ফ্লাইট ওঠানামা আনুষ্ঠানিকভাবে বন্ধ ছিল না জানিয়ে তিনি বলেন, এ কারণে শিডিউল ফ্লাইটগুলো কিছুটা বিলম্বে ছেড়েছে। এদিকে,বিমানের জরুরি অবতরণের কারণে শাহজালাল বিমানবন্দরে ৩০ থেকে ৪৫ মিনিট বন্ধ ছিল ফ্লাইট উঠানামা । এ সময় সৈয়দপুর থেকে ঢাকাগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট, ইন্ডিগো এয়ারের চেন্নাই থেকে ঢাকাগামী ফ্লাইট, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের যশোর ও কক্সবাজার ফ্লাইট, এয়ার ইন্ডিয়ার কলকাতা-ঢাকা ফ্লাইট, জেদ্দা থেকে ঢাকাগামী সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স (সৌদিয়া) একটি ফ্লাইট প্রায় ৩০ মিনিট আকাশে চক্কর দিতে থাকে বলে বিমানবন্দর সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে, বাংলাদেশ বিমানের জনসংযোগ কর্মকর্তা (পিআর/ জিএম) তাহেরা খন্দকার  সাংবাদিকদের জানান, বিমানটিতে কারিগরি ত্রুটি থাকার ফলে পাইলট বিমানটি অবতরণের কথা জানান। তিনি আরও বলেন, পাইলট বিমানটি নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় বিমানটি নিরাপদে অবতরণ করান। কোনো যাত্রীর ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। বিমানটি এখন হ্যাঙ্গারে রয়েছে। সেটি বিমানের ইঞ্জিনিয়াররা পরীক্ষা নিরীক্ষা করার পর জানাবেন আসলে কী সমস্যা হয়েছে।