ঢাকা ০৮:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কটিয়াদীতে নাইট মিনি ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত আজমিরীগঞ্জে জাকজমকভাবে ৫ শতাধিক মন্ডপে বিদ্যাদেবী সরস্বতী পুজা অনুষ্ঠিত রাজধানীতে পৃথক দুর্ঘটনায় দুই শিশুসহ নিহত-৩ লোহাগাড়া থানা পুলিশের অভিযানে ৩ টি বিপন্ন প্রাণী সহ আটক ৪ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে প্রধানমন্ত্রী প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষার ডিজিটাল প্লাটফর্ম তৈরী করেছেন প্রাচীন নিদর্শন ৩ গম্বুজ দেওগাঁ জামে মসজিদ কিশোরগঞ্জে ফরহাদ গ্যাংয়ের ৩ সদস্য আটক কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত চট্টগ্রাম মতি টাওয়ার মতি কমপ্লেক্স ট্রাভেলস এজেন্সি এসোসিয়েশনের মাসিক সভা-২০২৩ হবিগঞ্জের জীবন সংগ্রামী তরুণ নেজামুল হক

স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের অনুষ্ঠানে এমপি গ্রুপের হামলা

  • গোলাম আজম, রংপুর
  • আপডেট সময় ১২:৫০:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৩
  • ৬৪৫ বার পড়া হয়েছে

গত ১০জানুয়ারী ২০২৩ ইং তারিখে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের সক্রিয় দুটি গ্রুপ, (উপজেলা চেয়ারম্যান জাকির গ্রুপ) ও (এমপি আশিকুর রহমান গ্রুপ) পৃথক পৃথক ভাবে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন করেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সরকারের নেতৃত্বে জাকির গ্রুপ ১৭টি ইউনিয়ন থেকে আগত হাজার হাজার নেতাকর্মীদের নিয়ে পৃথকভাবে মিছিল সহকারে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে, উপজেলা চত্বরে বঙ্গবন্ধুর মূরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে, উপজেলা চত্বর প্রাঙ্গনে অবস্থিত বেগম রোকেয়া অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অপর দিকে এমপি আশিকুর রহমান গ্রুপের নেতাকর্মীরা সকল কর্মসূচী শেষে রংপুর ঢাকা মহাসড়কের ওভারপাসের নিচে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জাকির গ্রুপের আলোচনা সভা চলাকালীন সময় মিঠাপুকুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নিরঞ্জন মহন্ত বক্তব্য রাখেন। এমপি গ্রুপের অভিযোগ,বাবু নিরঞ্জন মহন্ত তার বক্তৃতায় এমপি ও তার ছেলে রাশেক রহমানের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন।

এটাকে কেন্দ্র করে এমপির লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।এসময় এমপি গ্রুপের উপস্থিত ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী ক্ষিপ্ত হয়ে বেগম রোকেয়া অডিটোরিয়ামের দিকে এগিয়ে এসে জাকির গ্রুপের লোকজনের সাথে হাতাহাতি করে ও তাদের দিকে চেয়ার নিক্ষেপ করেন। এই প্রতিবেদক কে জাকির হোসেন সরকার বলেন,আমি মারামারি ও সংঘাতের রাজনীতি করি না।আমি আমার লোকজন কে শান্ত থাকতে বলেছি। এসময় উপস্থিত ১নং ৫নং ৮নং ১৭নং ১২নং ১০নং ইউনিয়ন থেকে আগত কয়েকজন নেতাকর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, জাকির গ্রুপের সব প্রোগ্রামে হাজার হাজার লোকজন, জাকিরকে ভালবেসে স্বতঃস্ফূর্তভাবে উপস্থিত হয়।আর এটা দেখে এমপি গ্রুপের লোকজন রাগান্বিত হয়ে এটা করে থাকতে পারে,যাতে করে জাকিরের লোকজন ভয় করে।আর কোন প্রোগ্রামে উপস্থিত না হয়।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কটিয়াদীতে নাইট মিনি ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত

স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের অনুষ্ঠানে এমপি গ্রুপের হামলা

আপডেট সময় ১২:৫০:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১১ জানুয়ারী ২০২৩

গত ১০জানুয়ারী ২০২৩ ইং তারিখে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে রংপুর জেলার মিঠাপুকুর উপজেলায় আওয়ামী লীগের সক্রিয় দুটি গ্রুপ, (উপজেলা চেয়ারম্যান জাকির গ্রুপ) ও (এমপি আশিকুর রহমান গ্রুপ) পৃথক পৃথক ভাবে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উদযাপন করেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান জাকির হোসেন সরকারের নেতৃত্বে জাকির গ্রুপ ১৭টি ইউনিয়ন থেকে আগত হাজার হাজার নেতাকর্মীদের নিয়ে পৃথকভাবে মিছিল সহকারে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে, উপজেলা চত্বরে বঙ্গবন্ধুর মূরালে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে, উপজেলা চত্বর প্রাঙ্গনে অবস্থিত বেগম রোকেয়া অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অপর দিকে এমপি আশিকুর রহমান গ্রুপের নেতাকর্মীরা সকল কর্মসূচী শেষে রংপুর ঢাকা মহাসড়কের ওভারপাসের নিচে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জাকির গ্রুপের আলোচনা সভা চলাকালীন সময় মিঠাপুকুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচার সম্পাদক ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বাবু নিরঞ্জন মহন্ত বক্তব্য রাখেন। এমপি গ্রুপের অভিযোগ,বাবু নিরঞ্জন মহন্ত তার বক্তৃতায় এমপি ও তার ছেলে রাশেক রহমানের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন।

এটাকে কেন্দ্র করে এমপির লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।এসময় এমপি গ্রুপের উপস্থিত ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী ক্ষিপ্ত হয়ে বেগম রোকেয়া অডিটোরিয়ামের দিকে এগিয়ে এসে জাকির গ্রুপের লোকজনের সাথে হাতাহাতি করে ও তাদের দিকে চেয়ার নিক্ষেপ করেন। এই প্রতিবেদক কে জাকির হোসেন সরকার বলেন,আমি মারামারি ও সংঘাতের রাজনীতি করি না।আমি আমার লোকজন কে শান্ত থাকতে বলেছি। এসময় উপস্থিত ১নং ৫নং ৮নং ১৭নং ১২নং ১০নং ইউনিয়ন থেকে আগত কয়েকজন নেতাকর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেছেন, জাকির গ্রুপের সব প্রোগ্রামে হাজার হাজার লোকজন, জাকিরকে ভালবেসে স্বতঃস্ফূর্তভাবে উপস্থিত হয়।আর এটা দেখে এমপি গ্রুপের লোকজন রাগান্বিত হয়ে এটা করে থাকতে পারে,যাতে করে জাকিরের লোকজন ভয় করে।আর কোন প্রোগ্রামে উপস্থিত না হয়।