ঢাকা ০২:১৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শিক্ষার্থীর গায়ে বেতের আঘাত গুরুতর অসুস্থ রংপুর মেডিকেল কলেজ ভর্তি

রংপুর জেলার তাজহাট মেট্রোপলিটন এলাকায় আব্দুল মজিদ দারুদ তাকওয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও লিল্লাহ বোর্ডিংয়ে শিক্ষার্থী নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরজমিনই গিয়ে ও স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায় আব্দুল মজিদ দারুদ তাকওয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা তাজহাট মেট্রোপলিটন এলাকার ধর্মদাস মসজিদ পড়া রংপুর অবস্থিত।

মাদ্রাসার শিক্ষার্থী মোঃ আরাফাত ইসলাম পিতা আরিফুল ইসলাম ধর্মদাস মিলন পড়া তাজহাট মেট্রোপলিটন রংপুর উক্ত মাদ্রাসায় ছয় পারা কোরআনের হাফেজ প্রতিদিনের ন্যায় ২২,১১,২০২২ মাদ্রাসায় পড়তে গেলে উক্ত মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ আবু মুসা তার নিজস্ব কাপড় দিয়ে মোড়ানো তার শোয়ার স্থানে ডাকে কিন্তু শিক্ষার্থী আরাফাত ইসলাম তার স্বয়ং কক্ষে যেতে অস্বীকার করিলে হাফেজ আবু মুসা বেতের লাঠিদারা মারপিট করে এতে শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

পরবর্তীতে উক্ত শিক্ষার্থীকে মার ডাং করাকে কেন্দ্র করে হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও লিল্লা বোর্ডিং গোলযোগ সৃষ্টি হয়। শিক্ষার্থীর দাদির অভিযোগ আমার নাতিকে কেন এভাবে মারা হবে বাংলাদেশ সরকার শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক শিক্ষার্থীর গায়ে হাত না তোলার জন্য বারবার নিষেধ থাকা সত্ত্বেও কেন এই হাফেজ আমার নাতির গায়ে বেতের আঘাত করল তা বোধগম্য নয় আমরা এর সঠিক বিচার চাই। উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রধান হুজুর বলেন শিক্ষার্থীর গায়ে হাত তোলা শিক্ষক ঠিক করেনি তবে বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাজহাট মেট্রোপলিটন থানার অফিসার্স ইনচার্জ দৈনিক আমাদের মাতৃভূমিকে জানায়, বিষয়টি শুনেছি ঘটনা স্থলে একজন পুলিশ অফিসার কে পাঠিয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

শিক্ষার্থীর গায়ে বেতের আঘাত গুরুতর অসুস্থ রংপুর মেডিকেল কলেজ ভর্তি

আপডেট সময় ১০:৫৪:৫৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর ২০২২

রংপুর জেলার তাজহাট মেট্রোপলিটন এলাকায় আব্দুল মজিদ দারুদ তাকওয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও লিল্লাহ বোর্ডিংয়ে শিক্ষার্থী নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরজমিনই গিয়ে ও স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা যায় আব্দুল মজিদ দারুদ তাকওয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসা তাজহাট মেট্রোপলিটন এলাকার ধর্মদাস মসজিদ পড়া রংপুর অবস্থিত।

মাদ্রাসার শিক্ষার্থী মোঃ আরাফাত ইসলাম পিতা আরিফুল ইসলাম ধর্মদাস মিলন পড়া তাজহাট মেট্রোপলিটন রংপুর উক্ত মাদ্রাসায় ছয় পারা কোরআনের হাফেজ প্রতিদিনের ন্যায় ২২,১১,২০২২ মাদ্রাসায় পড়তে গেলে উক্ত মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ আবু মুসা তার নিজস্ব কাপড় দিয়ে মোড়ানো তার শোয়ার স্থানে ডাকে কিন্তু শিক্ষার্থী আরাফাত ইসলাম তার স্বয়ং কক্ষে যেতে অস্বীকার করিলে হাফেজ আবু মুসা বেতের লাঠিদারা মারপিট করে এতে শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

পরবর্তীতে উক্ত শিক্ষার্থীকে মার ডাং করাকে কেন্দ্র করে হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও লিল্লা বোর্ডিং গোলযোগ সৃষ্টি হয়। শিক্ষার্থীর দাদির অভিযোগ আমার নাতিকে কেন এভাবে মারা হবে বাংলাদেশ সরকার শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক শিক্ষার্থীর গায়ে হাত না তোলার জন্য বারবার নিষেধ থাকা সত্ত্বেও কেন এই হাফেজ আমার নাতির গায়ে বেতের আঘাত করল তা বোধগম্য নয় আমরা এর সঠিক বিচার চাই। উক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রধান হুজুর বলেন শিক্ষার্থীর গায়ে হাত তোলা শিক্ষক ঠিক করেনি তবে বিষয়টি আমরা খতিয়ে দেখছি দোষীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাজহাট মেট্রোপলিটন থানার অফিসার্স ইনচার্জ দৈনিক আমাদের মাতৃভূমিকে জানায়, বিষয়টি শুনেছি ঘটনা স্থলে একজন পুলিশ অফিসার কে পাঠিয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।