ঢাকা ০২:২২ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

১ ডিসেম্বর শুরু হচ্ছে ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম এক্সপো

ভ্রমণ ও পর্যটন খাতকে আরও এগিয়ে নিতে আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম এক্সপো।

অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব) আয়োজিত তিন দিনব্যাপী এ এক্সপো বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। এবারের এই আয়োজনের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে আছে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়া বেসরকারি এয়ারলাইন্স

চুক্তি অনুযায়ী এক্সপো প্রাঙ্গণের সব ব্র্যান্ডিং ও টাইটেল স্পন্সর হিসেবে এয়ার অ্যাস্ট্রা বিশেষ সুবিধা ভোগ করবে।

সংবাদ সম্মেলনে আটাবের সভাপতি এস এন মঞ্জুর মোর্শেদ (মাহবুব) বলেন, আটাব ভ্রমণ ও পর্যটন খাতে গত ৪৫ বছর ধরে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ১ থেকে ৩ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আটাবের উদ্যোগে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনল ট্রাভেল অ্যান্ড  ট্যুরিজম এক্সপো আয়োজিত হতে যাচ্ছে। এরইমধ্যে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ও দেশি এয়ারলাইন্স, হসপিটাল, ট্যুরিজম বোর্ড, ট্রাভেল এজেন্সি, ট্যুর অপারেটর, হোটেল, রিসোর্ট, ক্রুজ লাইনার এক্সপোতে প্রদর্শক হিসেবে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছে।

আয়োজকরা জানান, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত কিছু কার্যক্রম যেমন প্রোডাক্ট ব্রান্ডিং, বিদেশি মুদ্রা অর্জনে দেশের পর্যটন সেবার মানোন্নয়ন ও বিক্রির বাজার সৃষ্টি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ফ্যাম ট্যুর, পর্যটন শিল্পের প্রচার-প্রসার, ঐতিহ্যবাহী খাদ্য প্রদর্শন, বিভিন্ন দেশের দূতাবাস ও হাইকমিশনগুলোর সঙ্গে সু-সম্পর্ক স্থাপন, ট্রাভেল এজেন্সি, ট্যুর অপারেটর, এয়ারলাইন্সগুলোর মধ্যে দৃঢ় ব্যবসায়িক সম্পর্ক গড়ে তোলা, দেশের পর্যটন সচেতনতা বৃদ্ধি করা এই এক্সপোর মূল উদ্দেশ্যে। এছাড়া আয়োজিত এই এক্সপোতে বিভিন্ন সেমিনার, গোলটেবিল আলোচনা, কর্মশালা, বিটুবি সেশন, পর্যটন সেবাগুলো দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদের কাছে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করার জন্য বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশে আন্তর্জাতিকমানের ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম প্রদর্শনীর পরিকল্পনার বিষয়টি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আটাবের মহাসচিব আবদুস সালাম আরেফ, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের জেনারেল ম্যানেজার (পাবলিক রিলেশন) কামরুল ইসলাম, আটাব সহ-সভাপতি আফসিয়া জান্নাত সালেহ, উপমহাসচিব গোলাম মাহমুদ ভুইয়া মানিক, অর্থসচিব আব্দুর রাজ্জাক, পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারি আতিকুর রহমান, কালচারাল সেক্রেটারি তোয়াহা চৌধুরী, আটাব কার্যনির্বাহী সদস্য মনসুর আলম পারভেজ, আটাবের সাবেক মহাসচিব জিল্লুর চৌধুরী দিপু প্রমুখ।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

১ ডিসেম্বর শুরু হচ্ছে ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম এক্সপো

আপডেট সময় ০১:২৬:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৪ নভেম্বর ২০২২

ভ্রমণ ও পর্যটন খাতকে আরও এগিয়ে নিতে আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম এক্সপো।

অ্যাসোসিয়েশন অব ট্রাভেল এজেন্টস অব বাংলাদেশ (আটাব) আয়োজিত তিন দিনব্যাপী এ এক্সপো বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। এবারের এই আয়োজনের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে আছে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য চূড়ান্ত অনুমোদন পাওয়া বেসরকারি এয়ারলাইন্স

চুক্তি অনুযায়ী এক্সপো প্রাঙ্গণের সব ব্র্যান্ডিং ও টাইটেল স্পন্সর হিসেবে এয়ার অ্যাস্ট্রা বিশেষ সুবিধা ভোগ করবে।

সংবাদ সম্মেলনে আটাবের সভাপতি এস এন মঞ্জুর মোর্শেদ (মাহবুব) বলেন, আটাব ভ্রমণ ও পর্যটন খাতে গত ৪৫ বছর ধরে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ১ থেকে ৩ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আটাবের উদ্যোগে বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনল ট্রাভেল অ্যান্ড  ট্যুরিজম এক্সপো আয়োজিত হতে যাচ্ছে। এরইমধ্যে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ও দেশি এয়ারলাইন্স, হসপিটাল, ট্যুরিজম বোর্ড, ট্রাভেল এজেন্সি, ট্যুর অপারেটর, হোটেল, রিসোর্ট, ক্রুজ লাইনার এক্সপোতে প্রদর্শক হিসেবে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছে।

আয়োজকরা জানান, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত কিছু কার্যক্রম যেমন প্রোডাক্ট ব্রান্ডিং, বিদেশি মুদ্রা অর্জনে দেশের পর্যটন সেবার মানোন্নয়ন ও বিক্রির বাজার সৃষ্টি, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, ফ্যাম ট্যুর, পর্যটন শিল্পের প্রচার-প্রসার, ঐতিহ্যবাহী খাদ্য প্রদর্শন, বিভিন্ন দেশের দূতাবাস ও হাইকমিশনগুলোর সঙ্গে সু-সম্পর্ক স্থাপন, ট্রাভেল এজেন্সি, ট্যুর অপারেটর, এয়ারলাইন্সগুলোর মধ্যে দৃঢ় ব্যবসায়িক সম্পর্ক গড়ে তোলা, দেশের পর্যটন সচেতনতা বৃদ্ধি করা এই এক্সপোর মূল উদ্দেশ্যে। এছাড়া আয়োজিত এই এক্সপোতে বিভিন্ন সেমিনার, গোলটেবিল আলোচনা, কর্মশালা, বিটুবি সেশন, পর্যটন সেবাগুলো দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদের কাছে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করার জন্য বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশে আন্তর্জাতিকমানের ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম প্রদর্শনীর পরিকল্পনার বিষয়টি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আটাবের মহাসচিব আবদুস সালাম আরেফ, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের জেনারেল ম্যানেজার (পাবলিক রিলেশন) কামরুল ইসলাম, আটাব সহ-সভাপতি আফসিয়া জান্নাত সালেহ, উপমহাসচিব গোলাম মাহমুদ ভুইয়া মানিক, অর্থসচিব আব্দুর রাজ্জাক, পাবলিক রিলেশন সেক্রেটারি আতিকুর রহমান, কালচারাল সেক্রেটারি তোয়াহা চৌধুরী, আটাব কার্যনির্বাহী সদস্য মনসুর আলম পারভেজ, আটাবের সাবেক মহাসচিব জিল্লুর চৌধুরী দিপু প্রমুখ।