ঢাকা ০২:৪৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে- প্রস্তুতিমূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত বগুড়ায় মদ্যপ অবস্থায় চাকুসহ বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের সভাপতি গ্রেফতার বগুড়ায় ভূমি অধিগ্রহণে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে চেক হস্তান্তর সাবেক এমপিসহ রামগঞ্জ বিএনপির ৫ নেতাকে অব্যাহতি স্কুল ছাত্রীর নগ্ন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে আটক আলঝেইমার্সের চিকিৎসায় ‘যুগান্তকারী’ ওষুধ আবিষ্কার প্রবাসীদের জন্য বিশ্বের সেরা ও সবচেয়ে বাজে শহর পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা হামলায় পুলিশসহ নিহত ৩, আহত ২৪ চীনা দমন-পীড়নের পর বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়ালেন ট্রুডো ভারতে জেএমবির ৩ সদস্যের ৭ বছরের কারাদণ্ড

শিক্ষা সচিবকে ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত সময় দিলেন হাইকোর্ট

জাতীয় শোক দিবসে একটি প্রতিষ্ঠানের অ্যাডহক কমিটি করে প্রজ্ঞাপন জারি করার বিষয়ে রিটকারীর অভিযোগ ও এ বিষয়ে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কায়সার আহমেদ ও রেজিস্ট্রার মো. সিদ্দিকুর রহমানের লিখিত ব্যাখ্যায় উঠে আসা বিষয় নিষ্পত্তি করতে শিক্ষা সচিবকে আগামী রোববার (১৩ নভেম্বর) পর্যন্ত সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ুন কবির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সেলিম আজাদ ও রেজাউল হক।

অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ুন কবির ঢাকা পোস্টকে বলেন, রিটকারীর অভিযোগ ও এ বিষয়ে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারের লিখিত ব্যাখ্যায় উঠে আসা বিষয় নিষ্পত্তি করতে শিক্ষা সচিবকে আদালত কয়েকবার সময় দিয়েছেন। কিন্তু এখনও তিনি নিষ্পত্তি করেননি। আদালত আজ শিক্ষা সচিবকে রোববার পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছেন। এরপর আদেশ বাস্তবায়ন না হলে শিক্ষা সচিবকে তলব করার কথা বলেছেন।

এর আগে গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর জাতীয় শোক দিবসে একটি প্রতিষ্ঠানের অ্যাডহক কমিটি করে প্রজ্ঞাপন জারি করার বিষয়ে রিটকারীর অভিযোগ ও এ বিষয়ে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কায়সার আহমেদ ও রেজিস্ট্রার মো. সিদ্দিকুর রহমানের লিখিত ব্যাখ্যা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠান হাইকোর্ট। আদালত বলেছিলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

গত বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব করেন হাইকোর্ট। জাতীয় শোক দিবসে সরকারি ছুটির দিনে একটি প্রতিষ্ঠানের অ্যাডহক কমিটি করে প্রজ্ঞাপন জারি করার বিষয়ে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়। এছাড়া জাতীয় শোক দিবসের দিনে অ্যাডহক কমিটি করে জারি করা প্রজ্ঞাপন স্থগিত করেন আদালত।

তার আগে ওই বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর ওই মাদরাসার এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক ওমর ফারুক প্রজ্ঞাপন জারির প্রক্রিয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন। রিটের শুনানিতে আদালত প্রশ্ন তোলেন, শোক দিবসে কীভাবে প্রজ্ঞাপন জারি করলেন। শুনানি শেষে আদালত মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব করেন।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে- প্রস্তুতিমূলক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

শিক্ষা সচিবকে ১৩ নভেম্বর পর্যন্ত সময় দিলেন হাইকোর্ট

আপডেট সময় ০৩:০৯:৫০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৮ নভেম্বর ২০২২

জাতীয় শোক দিবসে একটি প্রতিষ্ঠানের অ্যাডহক কমিটি করে প্রজ্ঞাপন জারি করার বিষয়ে রিটকারীর অভিযোগ ও এ বিষয়ে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কায়সার আহমেদ ও রেজিস্ট্রার মো. সিদ্দিকুর রহমানের লিখিত ব্যাখ্যায় উঠে আসা বিষয় নিষ্পত্তি করতে শিক্ষা সচিবকে আগামী রোববার (১৩ নভেম্বর) পর্যন্ত সময় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

মঙ্গলবার (৮ নভেম্বর) বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবীরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ুন কবির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সেলিম আজাদ ও রেজাউল হক।

অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ুন কবির ঢাকা পোস্টকে বলেন, রিটকারীর অভিযোগ ও এ বিষয়ে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারের লিখিত ব্যাখ্যায় উঠে আসা বিষয় নিষ্পত্তি করতে শিক্ষা সচিবকে আদালত কয়েকবার সময় দিয়েছেন। কিন্তু এখনও তিনি নিষ্পত্তি করেননি। আদালত আজ শিক্ষা সচিবকে রোববার পর্যন্ত সময় বেঁধে দিয়েছেন। এরপর আদেশ বাস্তবায়ন না হলে শিক্ষা সচিবকে তলব করার কথা বলেছেন।

এর আগে গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর জাতীয় শোক দিবসে একটি প্রতিষ্ঠানের অ্যাডহক কমিটি করে প্রজ্ঞাপন জারি করার বিষয়ে রিটকারীর অভিযোগ ও এ বিষয়ে মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক কায়সার আহমেদ ও রেজিস্ট্রার মো. সিদ্দিকুর রহমানের লিখিত ব্যাখ্যা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠান হাইকোর্ট। আদালত বলেছিলেন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে।

গত বছরের ১৯ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব করেন হাইকোর্ট। জাতীয় শোক দিবসে সরকারি ছুটির দিনে একটি প্রতিষ্ঠানের অ্যাডহক কমিটি করে প্রজ্ঞাপন জারি করার বিষয়ে হাজির হয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়। এছাড়া জাতীয় শোক দিবসের দিনে অ্যাডহক কমিটি করে জারি করা প্রজ্ঞাপন স্থগিত করেন আদালত।

তার আগে ওই বছরের ১৬ সেপ্টেম্বর ওই মাদরাসার এক শিক্ষার্থীর অভিভাবক ওমর ফারুক প্রজ্ঞাপন জারির প্রক্রিয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন। রিটের শুনানিতে আদালত প্রশ্ন তোলেন, শোক দিবসে কীভাবে প্রজ্ঞাপন জারি করলেন। শুনানি শেষে আদালত মাদরাসা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও রেজিস্ট্রারকে তলব করেন।