ঢাকা ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কটিয়াদীতে নাইট মিনি ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত আজমিরীগঞ্জে জাকজমকভাবে ৫ শতাধিক মন্ডপে বিদ্যাদেবী সরস্বতী পুজা অনুষ্ঠিত রাজধানীতে পৃথক দুর্ঘটনায় দুই শিশুসহ নিহত-৩ লোহাগাড়া থানা পুলিশের অভিযানে ৩ টি বিপন্ন প্রাণী সহ আটক ৪ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে প্রধানমন্ত্রী প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষার ডিজিটাল প্লাটফর্ম তৈরী করেছেন প্রাচীন নিদর্শন ৩ গম্বুজ দেওগাঁ জামে মসজিদ কিশোরগঞ্জে ফরহাদ গ্যাংয়ের ৩ সদস্য আটক কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত চট্টগ্রাম মতি টাওয়ার মতি কমপ্লেক্স ট্রাভেলস এজেন্সি এসোসিয়েশনের মাসিক সভা-২০২৩ হবিগঞ্জের জীবন সংগ্রামী তরুণ নেজামুল হক

সরকার নিজেদের পতনের ধ্বনি শুনতে পাচ্ছে: মির্জা ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার নিজেদের পতনের ধ্বনি শুনতে পাচ্ছে। আর এজন্যই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের হিড়িক শুরু করেছে।

বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, দেশে আইনের শাসনকে অদৃশ্য করে নেতাকর্মীদের জামিন বাতিলের মাধ্যমে কারাগারে নিক্ষেপ করা হচ্ছে। স্বাধীন দেশে গণতন্ত্রকে কবর দিয়ে  ফ্যাসিবাদ কায়েম করা হয়েছে। মানুষ এক ভয়াবহ আতঙ্ক ও অস্বস্তির মধ্যে দিন যাপন করছে। কিন্তু জনগণের প্রবল প্রতিরোধের মুখে আওয়ামী সরকারের পতন অত্যাসন্ন।

বুধবার থেকে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণসহ দেশব্যাপী বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, বাসায় বাসায় হানা ও হয়রানির অভিযোগ করে এর  নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি  বলেন, নজিরবিহীন দুঃশাসনের বিরুদ্ধে তৃণমূলে জনগণের যে উত্থান ঘটেছে তাতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে কর্তৃত্ববাদী আওয়ামী লীগ সরকার। তাই মানুষের মনে ভীতি সৃষ্টি করতেই আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে বেপরোয়াভাবে জুলুম-নির্যাতন চালানো শুরু করেছে। এরই অংশ হিসেবে মিথ্যা মামলায় রংপুর জেলা বিএনপির সদস্য ও গঙ্গাচড়া উপজেলার সভাপতি ওয়াহেদুজ্জামান মাবুর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, গ্যাস, বিদ্যুৎ পানিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে মানুষ এখন চরম দুর্ভোগে নিপতিত। আর তখনই কর্তৃত্ববাদী আওয়ামী সরকার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করতে সাঁড়াশী অভিযান শুরু করেছে।

বুধবার থেকে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জাহান জাহান, দারুস সালাম থানাল সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কবির, ১১ নং ওয়ার্ডের সভাপতি আফজাল হোসেন এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ৪ নং ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া পাভেল, সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন অর রশিদ (গংগা), ২০ নং ওয়ার্ডের যুগ্ম আহবায়ক চন্দন ও পল্টন থানা শ্রমিক দলের আহবায়ক আবু তাহেরকে গ্রেফতার ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের সদস্য সচিব বদরুল আলম সবুজসহ অনেক নেতাকর্মীদের বাসায় বাসায় গ্রেফতারের উদ্দেশ্যে হানা দিচ্ছে পুলিশ। নেতাকর্মীদেরকে বাসায় না পেয়ে পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হচ্ছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ইতোপূর্বে মিথ্যা মামলায় আটক ফরিদগঞ্জ উপজেলা বিএনপির দফতর সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা ফারুক আহমেদ খানকে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে চাঁদপুর জেলা কারাগারে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। অবিলম্বে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারসহ আটককৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান মির্জা ফখরুল। একই সঙ্গে বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের বাসায় বাসায় পুলিশী অভিযান ও হয়রানী বন্ধের আহবানও জানান।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কটিয়াদীতে নাইট মিনি ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত

সরকার নিজেদের পতনের ধ্বনি শুনতে পাচ্ছে: মির্জা ফখরুল

আপডেট সময় ০৩:১০:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৪ নভেম্বর ২০২২

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার নিজেদের পতনের ধ্বনি শুনতে পাচ্ছে। আর এজন্যই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের হিড়িক শুরু করেছে।

বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, দেশে আইনের শাসনকে অদৃশ্য করে নেতাকর্মীদের জামিন বাতিলের মাধ্যমে কারাগারে নিক্ষেপ করা হচ্ছে। স্বাধীন দেশে গণতন্ত্রকে কবর দিয়ে  ফ্যাসিবাদ কায়েম করা হয়েছে। মানুষ এক ভয়াবহ আতঙ্ক ও অস্বস্তির মধ্যে দিন যাপন করছে। কিন্তু জনগণের প্রবল প্রতিরোধের মুখে আওয়ামী সরকারের পতন অত্যাসন্ন।

বুধবার থেকে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণসহ দেশব্যাপী বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, বাসায় বাসায় হানা ও হয়রানির অভিযোগ করে এর  নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি  বলেন, নজিরবিহীন দুঃশাসনের বিরুদ্ধে তৃণমূলে জনগণের যে উত্থান ঘটেছে তাতে দিশেহারা হয়ে পড়েছে কর্তৃত্ববাদী আওয়ামী লীগ সরকার। তাই মানুষের মনে ভীতি সৃষ্টি করতেই আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে বেপরোয়াভাবে জুলুম-নির্যাতন চালানো শুরু করেছে। এরই অংশ হিসেবে মিথ্যা মামলায় রংপুর জেলা বিএনপির সদস্য ও গঙ্গাচড়া উপজেলার সভাপতি ওয়াহেদুজ্জামান মাবুর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, গ্যাস, বিদ্যুৎ পানিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিতে মানুষ এখন চরম দুর্ভোগে নিপতিত। আর তখনই কর্তৃত্ববাদী আওয়ামী সরকার আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে দিয়ে নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করতে সাঁড়াশী অভিযান শুরু করেছে।

বুধবার থেকে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক আশরাফুজ্জাহান জাহান, দারুস সালাম থানাল সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ুন কবির, ১১ নং ওয়ার্ডের সভাপতি আফজাল হোসেন এবং ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ৪ নং ওয়ার্ডের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন ভূঁইয়া পাভেল, সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন অর রশিদ (গংগা), ২০ নং ওয়ার্ডের যুগ্ম আহবায়ক চন্দন ও পল্টন থানা শ্রমিক দলের আহবায়ক আবু তাহেরকে গ্রেফতার ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শ্রমিক দলের সদস্য সচিব বদরুল আলম সবুজসহ অনেক নেতাকর্মীদের বাসায় বাসায় গ্রেফতারের উদ্দেশ্যে হানা দিচ্ছে পুলিশ। নেতাকর্মীদেরকে বাসায় না পেয়ে পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হচ্ছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ইতোপূর্বে মিথ্যা মামলায় আটক ফরিদগঞ্জ উপজেলা বিএনপির দফতর সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা ফারুক আহমেদ খানকে সম্পূর্ণ অন্যায়ভাবে চাঁদপুর জেলা কারাগারে কারান্তরীণ রাখা হয়েছে। অবিলম্বে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারসহ আটককৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান মির্জা ফখরুল। একই সঙ্গে বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের বাসায় বাসায় পুলিশী অভিযান ও হয়রানী বন্ধের আহবানও জানান।