ঢাকা ১০:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩, ৮ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
উত্তরায় বিডিআর কাঁচাবাজারে চাঁদাবাজির অভিযোগে ব্যবসায়ী সমিতির নেতাসহ আটক-২ ডিরেক্টরস গিল্ডের স্বপথ অনুষ্ঠান শার্শায় বিজিবির তৎপরতায় বিপুল পরিমাণ ভারতীয় ইয়াবা উদ্ধার কুমিল্লায় পুলিশের অভিযানে ০৩ জন ছিনতাইকারী গ্রেফতার প্রয়াত সাংবাদিক জালাল উদ্দিনের পরিবারকে সহায়তার চেক প্রদান ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৫ ডাকাত গ্রেফতার ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার একশো পরিবার পেল ‘স্বপ্নের নীড়’ সবুজের বুকে লাল আশ্রয়ন বুধবার দৃশ্যমান নওয়াগাঁও প্রকল্প উদ্বোধন মৌতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২০২৩ সালের পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও ষষ্ঠ শ্রেণীর নবীন বরণ অনুষ্ঠিত সাপাহারে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমিসহ ঘর পেল আরও ৯৬ টি ভূমিহীন পরিবার

ইউক্রেনে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করেছেন রুশ কমান্ডাররা

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর সিনিয়র কমান্ডাররা ইউক্রেনে পরমাণু অস্ত্রের ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করেছেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মূলত কখন ও কিভাবে তারা ইউক্রেনের যুদ্ধক্ষেত্রে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে, সেই বিষয়টি নিয়েই গত মাসে এই আলোচনা হয়।

বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। এতে বলা হয়েছে, কিভাবে এবং কখন ইউক্রেনের যুদ্ধক্ষেত্রে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করা যেতে পারে সে সম্পর্কে সিনিয়র রুশ সামরিক নেতারা গত মাসে আলোচনা করেছেন বলে দুই মার্কিন কর্মকর্তা সিবিএস নিউজকে বলেছেন।

তবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ওই আলোচনায় সম্পৃক্ত ছিলেন না বলে তারা বিবিসির মার্কিন সহযোগীকে জানিয়েছেন। হোয়াইট হাউস বলেছে, তারা গত কয়েক মাসে (ইউক্রেনে) পারমাণবিক অস্ত্রের সম্ভাব্য ব্যবহার নিয়ে ‘ক্রমবর্ধমান ভাবে উদ্বিগ্ন’ হয়ে উঠেছে। তবে তারা এটিও জোর দিয়ে বলে আসছে, ইউক্রেনে এই ধরনের অস্ত্র ব্যবহারের জন্য রাশিয়ার প্রস্তুতির কোনও লক্ষণ দেখেনি যুক্তরাষ্ট্র।

গত সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার পারমাণবিক এবং পশ্চিমা বিরোধী বক্তব্যকে আরও একধাপ বাড়িয়ে দিয়ে বলেছিলেন, রাশিয়া এবং তার দখলকৃত ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডকে রক্ষা করার জন্য হাতে থাকা সকল উপায় ব্যবহার করবে মস্কো।

এদিকে রাশিয়া পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করেছে বলে মার্কিন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা মুখপাত্র জন কিরবি বলেছেন: ‘এই কয়েক মাস ধরে আমরা (পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের) সম্ভাব্যতা নিয়ে উদ্বিগ্ন রয়েছি।’

এছাড়া যুদ্ধক্ষেত্রে রাশিয়া ক্রমশ ব্যর্থতা ও ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ায় রুশ বাহিনীর পারমাণবিক হামলার হুমকি বেড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

রাশিয়া গত সপ্তাহে নিয়মিত পারমাণবিক মহড়া চালায়। ওই মহড়ায় বড় আকারের কৌশলগত অস্ত্র দিয়ে শত্রুর পারমাণবিক আক্রমণের প্রতিশোধ নেওয়ার মতো কর্মকাণ্ড চালাতে দেখা যায় রুশ সেনাদের। যদিও রাশিয়ার পারমাণবিক মতবাদে শুধুমাত্র পরমাণু অস্ত্রের প্রতিরক্ষামূলক ব্যবহারের অনুমতি রয়েছে।

অন্যদিকে গত মঙ্গলবার রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের উপপ্রধান ও সাবেক রুশ প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ রাশিয়ার পরমাণু মতবাদের আরেকটি উপাদান সামনে এনেছেন। আর তা হলো- রাষ্ট্রের জন্য অস্তিত্বের হুমকির ক্ষেত্রে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করা যাবে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

উত্তরায় বিডিআর কাঁচাবাজারে চাঁদাবাজির অভিযোগে ব্যবসায়ী সমিতির নেতাসহ আটক-২

ইউক্রেনে পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করেছেন রুশ কমান্ডাররা

আপডেট সময় ১১:৫৪:০১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ নভেম্বর ২০২২

রাশিয়ার সামরিক বাহিনীর সিনিয়র কমান্ডাররা ইউক্রেনে পরমাণু অস্ত্রের ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করেছেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মূলত কখন ও কিভাবে তারা ইউক্রেনের যুদ্ধক্ষেত্রে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করতে পারে, সেই বিষয়টি নিয়েই গত মাসে এই আলোচনা হয়।

বৃহস্পতিবার (৩ নভেম্বর) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। এতে বলা হয়েছে, কিভাবে এবং কখন ইউক্রেনের যুদ্ধক্ষেত্রে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করা যেতে পারে সে সম্পর্কে সিনিয়র রুশ সামরিক নেতারা গত মাসে আলোচনা করেছেন বলে দুই মার্কিন কর্মকর্তা সিবিএস নিউজকে বলেছেন।

তবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ওই আলোচনায় সম্পৃক্ত ছিলেন না বলে তারা বিবিসির মার্কিন সহযোগীকে জানিয়েছেন। হোয়াইট হাউস বলেছে, তারা গত কয়েক মাসে (ইউক্রেনে) পারমাণবিক অস্ত্রের সম্ভাব্য ব্যবহার নিয়ে ‘ক্রমবর্ধমান ভাবে উদ্বিগ্ন’ হয়ে উঠেছে। তবে তারা এটিও জোর দিয়ে বলে আসছে, ইউক্রেনে এই ধরনের অস্ত্র ব্যবহারের জন্য রাশিয়ার প্রস্তুতির কোনও লক্ষণ দেখেনি যুক্তরাষ্ট্র।

গত সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন তার পারমাণবিক এবং পশ্চিমা বিরোধী বক্তব্যকে আরও একধাপ বাড়িয়ে দিয়ে বলেছিলেন, রাশিয়া এবং তার দখলকৃত ইউক্রেনীয় ভূখণ্ডকে রক্ষা করার জন্য হাতে থাকা সকল উপায় ব্যবহার করবে মস্কো।

এদিকে রাশিয়া পরমাণু অস্ত্র ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করেছে বলে মার্কিন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনের প্রতিক্রিয়ায় হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা মুখপাত্র জন কিরবি বলেছেন: ‘এই কয়েক মাস ধরে আমরা (পরমাণু অস্ত্র ব্যবহারের) সম্ভাব্যতা নিয়ে উদ্বিগ্ন রয়েছি।’

এছাড়া যুদ্ধক্ষেত্রে রাশিয়া ক্রমশ ব্যর্থতা ও ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হওয়ায় রুশ বাহিনীর পারমাণবিক হামলার হুমকি বেড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

রাশিয়া গত সপ্তাহে নিয়মিত পারমাণবিক মহড়া চালায়। ওই মহড়ায় বড় আকারের কৌশলগত অস্ত্র দিয়ে শত্রুর পারমাণবিক আক্রমণের প্রতিশোধ নেওয়ার মতো কর্মকাণ্ড চালাতে দেখা যায় রুশ সেনাদের। যদিও রাশিয়ার পারমাণবিক মতবাদে শুধুমাত্র পরমাণু অস্ত্রের প্রতিরক্ষামূলক ব্যবহারের অনুমতি রয়েছে।

অন্যদিকে গত মঙ্গলবার রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের উপপ্রধান ও সাবেক রুশ প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভ রাশিয়ার পরমাণু মতবাদের আরেকটি উপাদান সামনে এনেছেন। আর তা হলো- রাষ্ট্রের জন্য অস্তিত্বের হুমকির ক্ষেত্রে পারমাণবিক অস্ত্র ব্যবহার করা যাবে।