ঢাকা ০৪:১৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ১৭ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কুমিল্লার মুরাদনগরে গরিব দুঃস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন স্থানীয় এমপি আসছে হালিম মজুমদারের পরিচালনায় রোমহর্ষক গল্পের নাটক ‘বিস্ময় বালিকা’ জমকালো আয়োজনে শার্শার বাগ আঁচড়ায় এশিয়ান টিভির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন কুমিল্লা নগরীর ডাস্টবিনে নবজাতকের লাশ ১৯১ অনলাইন পোর্টাল বন্ধে তথ্য মন্ত্রণালয়ের চিঠি ঝিকরগাছায় থানা পুলিশের তৎপরতায় বিদেশি মদ সহ এক মাদক চোরাকারবারি আটক সময়ও কথা সাপ্তাহিক পত্রিকার উদ্বোধন কুমিল্লায় হোটেল তদার‌কি অ‌ভিযা‌নে দুই প্রতিষ্ঠান‌কে ১লাখ ২০ হাজার টাকা জ‌রিমানা কুমিল্লা জেলা গোয়েন্দা শাখা বিশেষ অভিযানে অস্ত্র ও গুলিসহ আটক ১ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পেলেন খাদিজা আক্তার পূর্ণী

নেতার তোপের মুখে সভাস্থল ত্যাগ করলেন উপজেলার নবগঠিত কমিটি

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার নবগঠিত বিএনপির কমিটির নেতৃবৃন্দকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করেছে চন্ডিপুর ইউনিয়ন বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে লক্ষ্ণীপুর জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোঃ ইউনুছ। গতকাল ৫নম্বর চন্ডিপুর ইউনিয়নের ডাঃ জাহাঙ্গীরের বাড়ির উঠানে ২৯অক্টোরবর ঘোষিত উপজেলা বিএনপি নেতাদের এক পরিচিতি সভায় ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এসময় উপজেলা বিএনপির নবগঠিত কমিটিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তারা। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে দাবী করেন উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ অক্টোবর (শনিবার) দিবাগত রাতে লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, যুগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট হাছিবুর রহমান ও সদস্য সচিব সাহাব উদ্দিন সাবু স্বাক্ষরিত রামগঞ্জ উপজেলার ৬১ ও পৌরসভার ৪৭সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন করেন।

ই কমিটি প্রকাশের পর থেকে স্থানীয় পুরাতন ত্যাগী নেতাদের নাম বাদ দিয়ে কমিটি ঘোষনা করায় উপজেলাব্যাপী নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক সমালোচনা ও চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল দক্ষিন চন্ডিপুর ডাঃ জাহাঙ্গীরের বাড়ির উঠানে পরিচিতি সভা করতে গেলে পদ বঞ্চিত নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে বিএনপি নব্য নেতাদের উপর হামলা করে। এসময় নেতারা দৌড়ে পালিয়ে গেলে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

পদ বঞ্চিত পৌরসভা বিএনপি সহ-সভাপতি প্রবীন নেতা মোঃ ইব্রাহীম মজুমদার বলেন, জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠার পর থেকে রাজনীতি শুরু করি। এক সময় গ্রাম সরকারের দায়িত্বে ছিলাম। এরপর লক্ষ্মীপুর জেলা যুবদলের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ছিলাম। তখন লক্ষ্মীপুর যুবদলের সভাপতি ছিলেন সাহাব উদ্দিন সাবু। এত ত্যাগ স্বীকারের পরেও আমাকে কমিটি থেকে কার ষড়যন্ত্রে আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। আমি সেটা জানতে চাই।

আমার মেয়ে বিউটি মজুমদার ছাত্রজীবন থেকে রামগঞ্জ সরকারী কলেজের মহিলা সম্পাদিকা থেকে শুরু করে ৩বার বিএনপি থেকে উপজেলা নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের নির্বাচন করেছেন। গত১৫ বছর থেকে উপজেলা মহিলা দলের সভানেত্রীর দায়িত্বে রয়েছে। কিন্তু তাকে সদস্য পর্যন্ত্ম রাখা হয়নি।

যদি বর্তমান কমিটি বাতিল না করা হয় তাহলে উপজেলাব্যাপী বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মােঝে ত্রিমূখী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে। উপজেলা বিএনপির একাংশ ও পৌর বিএনপির আহবায়ক শেখ কামরম্নজ্জামান জানান, ছাত্রদলের এক নেতা সভা চলাকালীন সময়ে হটাৎ করেই উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মাহাবুবুর রহমান বাহারকে খোঁজ করতে থাকেন। এসময় ওই ছাত্রদল নেতা এখানে কোন সভা করা যাবে না বলে উপস্থিত নেতাকর্মীদের হুমকি দেয়। পরে সিনিয়র নেতাদের হস্থক্ষেপে কোন ধরনের দূর্ঘটনা ছাড়াই সভা সমাপ্তি করা হয়।

রামগঞ্জ উপজেলা বিএনপি সদস্য সচিব মাহবুবুর রহমান বাহার জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো: ইউনুসকে দায়ী করে বলেন, বিএনপির কমিটি নিয়ে তার এত মাথা ব্যথা কেন। সে কারো এজেন্ডা বাস্ত্মবায়ন করতে আজকে দলের সিনিয়র নেতাদের সাথে বেয়াদপি করেছে। আমরা জেলা বিএনপির নেতাদের কাছে বিষয়টি জানিয়েছি। আমরা তাকে দ্রম্নত ছাত্রদল থেকে বহিস্কারের দাবী জানাচ্ছি।

জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউনুস জানান, ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে ষড়যন্ত্রমূলক কমিটি করে যারা বিএনপিকে ধংস করতে চায় তাদেরকে কোন সভা সমাবেশ করতে দেয়া হবে না।

এসময় তিনি রামগঞ্জ উপজেলা ও পৌর কমিটিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেন। উপজেলা বিএনপি আহবায়ক সাবেক এমপি নাজিম উদ্দিন আহমেম্মদ জানান,চলমান সমস্যাগুলো নিরসনের জন্য আমাদের দফায় দফায় বৈঠক চলছে। সমাধানের পরে বিষয়টি আপনাদের প্রেস ব্রিপিং করে জানানো হবে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কুমিল্লার মুরাদনগরে গরিব দুঃস্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ করলেন স্থানীয় এমপি

নেতার তোপের মুখে সভাস্থল ত্যাগ করলেন উপজেলার নবগঠিত কমিটি

আপডেট সময় ০৭:৫২:৪৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২ নভেম্বর ২০২২

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার নবগঠিত বিএনপির কমিটির নেতৃবৃন্দকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করেছে চন্ডিপুর ইউনিয়ন বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে লক্ষ্ণীপুর জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মোঃ ইউনুছ। গতকাল ৫নম্বর চন্ডিপুর ইউনিয়নের ডাঃ জাহাঙ্গীরের বাড়ির উঠানে ২৯অক্টোরবর ঘোষিত উপজেলা বিএনপি নেতাদের এক পরিচিতি সভায় ওই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এসময় উপজেলা বিএনপির নবগঠিত কমিটিকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তারা। তবে এতে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি বলে দাবী করেন উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৯ অক্টোবর (শনিবার) দিবাগত রাতে লক্ষ্মীপুর জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, যুগ্ম আহ্বায়ক এডভোকেট হাছিবুর রহমান ও সদস্য সচিব সাহাব উদ্দিন সাবু স্বাক্ষরিত রামগঞ্জ উপজেলার ৬১ ও পৌরসভার ৪৭সদস্য বিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন করেন।

ই কমিটি প্রকাশের পর থেকে স্থানীয় পুরাতন ত্যাগী নেতাদের নাম বাদ দিয়ে কমিটি ঘোষনা করায় উপজেলাব্যাপী নেতাকর্মীদের মধ্যে ব্যাপক সমালোচনা ও চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল দক্ষিন চন্ডিপুর ডাঃ জাহাঙ্গীরের বাড়ির উঠানে পরিচিতি সভা করতে গেলে পদ বঞ্চিত নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে বিএনপি নব্য নেতাদের উপর হামলা করে। এসময় নেতারা দৌড়ে পালিয়ে গেলে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

পদ বঞ্চিত পৌরসভা বিএনপি সহ-সভাপতি প্রবীন নেতা মোঃ ইব্রাহীম মজুমদার বলেন, জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠার পর থেকে রাজনীতি শুরু করি। এক সময় গ্রাম সরকারের দায়িত্বে ছিলাম। এরপর লক্ষ্মীপুর জেলা যুবদলের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ছিলাম। তখন লক্ষ্মীপুর যুবদলের সভাপতি ছিলেন সাহাব উদ্দিন সাবু। এত ত্যাগ স্বীকারের পরেও আমাকে কমিটি থেকে কার ষড়যন্ত্রে আমাকে বাদ দেওয়া হয়েছে। আমি সেটা জানতে চাই।

আমার মেয়ে বিউটি মজুমদার ছাত্রজীবন থেকে রামগঞ্জ সরকারী কলেজের মহিলা সম্পাদিকা থেকে শুরু করে ৩বার বিএনপি থেকে উপজেলা নির্বাচনে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানের নির্বাচন করেছেন। গত১৫ বছর থেকে উপজেলা মহিলা দলের সভানেত্রীর দায়িত্বে রয়েছে। কিন্তু তাকে সদস্য পর্যন্ত্ম রাখা হয়নি।

যদি বর্তমান কমিটি বাতিল না করা হয় তাহলে উপজেলাব্যাপী বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মােঝে ত্রিমূখী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে। উপজেলা বিএনপির একাংশ ও পৌর বিএনপির আহবায়ক শেখ কামরম্নজ্জামান জানান, ছাত্রদলের এক নেতা সভা চলাকালীন সময়ে হটাৎ করেই উপজেলা বিএনপির সদস্য সচিব মাহাবুবুর রহমান বাহারকে খোঁজ করতে থাকেন। এসময় ওই ছাত্রদল নেতা এখানে কোন সভা করা যাবে না বলে উপস্থিত নেতাকর্মীদের হুমকি দেয়। পরে সিনিয়র নেতাদের হস্থক্ষেপে কোন ধরনের দূর্ঘটনা ছাড়াই সভা সমাপ্তি করা হয়।

রামগঞ্জ উপজেলা বিএনপি সদস্য সচিব মাহবুবুর রহমান বাহার জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো: ইউনুসকে দায়ী করে বলেন, বিএনপির কমিটি নিয়ে তার এত মাথা ব্যথা কেন। সে কারো এজেন্ডা বাস্ত্মবায়ন করতে আজকে দলের সিনিয়র নেতাদের সাথে বেয়াদপি করেছে। আমরা জেলা বিএনপির নেতাদের কাছে বিষয়টি জানিয়েছি। আমরা তাকে দ্রম্নত ছাত্রদল থেকে বহিস্কারের দাবী জানাচ্ছি।

জেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইউনুস জানান, ত্যাগী নেতাদের বাদ দিয়ে ষড়যন্ত্রমূলক কমিটি করে যারা বিএনপিকে ধংস করতে চায় তাদেরকে কোন সভা সমাবেশ করতে দেয়া হবে না।

এসময় তিনি রামগঞ্জ উপজেলা ও পৌর কমিটিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেন। উপজেলা বিএনপি আহবায়ক সাবেক এমপি নাজিম উদ্দিন আহমেম্মদ জানান,চলমান সমস্যাগুলো নিরসনের জন্য আমাদের দফায় দফায় বৈঠক চলছে। সমাধানের পরে বিষয়টি আপনাদের প্রেস ব্রিপিং করে জানানো হবে।