ঢাকা ১২:৪৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
প্রেমের বিয়েতে বাধা, অভিভাবকের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যার চেস্টা ফরিদগঞ্জের পাইকপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হলেন ছাত্রলীগনেতা রাজন শেখ বোরহানউদ্দিন কুঞ্জেরহাটে গ্রামীণফোন সেন্টারের শুভ উদ্বোধন রূপগঞ্জ থানা ছাত্রলীগ”নেতৃত্বে স্থলাভিষিক্ত হলেন মাদক সম্রাট রিয়াজ কাপুরুষ-হিংসুকদের গুরুত্ব দিও না, নেইমারকে উপদেশ রোনালদোর সুইসদের বিপক্ষে যেমন হতে পারে ব্রাজিলের একাদশ ছয় গোলের ম্যাচে ক্যামেরুনের এক পয়েন্ট করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৯ রেজাল্টের পরও মিষ্টি বিক্রির ধুম নেই, হতাশ দোকানিরা বিশেষ পরিস্থিতিতে তেল, গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম বাড়াতে পারবে সরকার

মোদির দেশপ্রেম নিয়ে প্রশংসায় পঞ্চমুখ পুতিন

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি বলেছেন, নরেন্দ্র মোদি প্রকৃত দেশপ্রেমিক। তার পররাষ্ট্রনীতি স্বাধীন এবং মোদির নেতৃত্বে ভারতের ভূমিকা বিশ্ব রাজনীতিতে ক্রমশই বাড়ছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) মস্কোতে ভালদাই ডিসকাশন ক্লাবের বৈঠকে এসব কথা বলেন পুতিন।যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমের বিভিন্ন দেশ যখন পুতিনের কঠোর নিন্দায় মুখর, তখন পুতিনের এ মোদি-বন্দনাকে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকেই জাতিসংঘে আনা রাশিয়া-বিরোধী সব প্রস্তাবেই ভোট দেওয়া থেকে বিরত থেকেছে মোদি সরকার। তবে ভারত সহিংসতার পথ থেকে সরে দ্রুত সংলাপ ও কূটনীতিতে ফেরার কথা বলেছে। সম্প্রতি এসসিও সম্মেলনের পার্শ্ব-বৈঠকে পুতিনকে মোদি বলেছেন, এসময় যুদ্ধ নয়, বরং জ্বালানি, খাদ্য এবং সারের প্রয়োজন।

কূটনৈতিকরা বলছেন, কোনো রাষ্ট্রকে তার আগ্রাসনের জন্য নাম না নিয়ে সংলাপে ফেরার অনুরোধ করা এক বিষয়। সে দেশের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নিন্দা প্রস্তাবে ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়ে ভোট দেওয়া অন্য বিষয়। ভারত ইউক্রেনের পাশে দাঁড়ানোর কাজটি কখনোই করেনি। সে কারণেই হয়ত মোদির প্রশংসা করে তাকে কৃতজ্ঞতা জানালেন পুতিন। শুধু তাই নয়, পুতিন মনে করিয়ে দিয়েছেন, ভারতের কৃষির জন্য তিনি এ বছর আগের তুলনায় ৭.৬ গুণ সার বেশি সরবরাহ করেছেন।

মস্কোয় একটি আলোচনাসভায় ভারত-রাশিয়া প্রসঙ্গে পুতিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি মহান দেশপ্রেমিক। নরেন্দ্র মোদি বিশ্বের সেই নেতাদের মধ্যে একজন, যিনি তার নিজের দেশ এবং জনগণের স্বার্থে স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতি অনুসরণ করতে পেরেছেন। আমি নিশ্চিত, ভারতের ভবিষ্যৎ খুবই উজ্জ্বল।…. এই পথে তাকে থামানোর চেষ্টা হয়েছে। তবে তিনি তার লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে চলেছেন।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের কোনো বকেয়া সমস্যা নেই। আমরা সবসময় পরস্পরকে সমর্থন করেছি। আমি আশাবাদী যে ভবিষ্যতেও তা হবে।দু’দেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে বলতে গিয়ে পুতিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি আমাকে সারের সরবরাহ বাড়াতে বলেছেন। ভারতীয় কৃষির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সেটা। এই আবহে আমরা সার সরবরাহ ৭.৬ গুণ বৃদ্ধি করেছি।

তিনি বলেন, ভারত যেভাবে ব্রিটিশ কলোনি থেকে একটি স্বাধীন দেশ হয়ে উঠেছে, তা সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে এবং একে সম্মান করা উচিত। বিগত কয়েক বছরে মোদির নেতৃত্বে ভারত অনেকটা এগিয়ে গেছে। তার মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্প গুরুত্বপূর্ণ।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

প্রেমের বিয়েতে বাধা, অভিভাবকের সাথে অভিমান করে আত্মহত্যার চেস্টা

মোদির দেশপ্রেম নিয়ে প্রশংসায় পঞ্চমুখ পুতিন

আপডেট সময় ১২:১০:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২২

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। তিনি বলেছেন, নরেন্দ্র মোদি প্রকৃত দেশপ্রেমিক। তার পররাষ্ট্রনীতি স্বাধীন এবং মোদির নেতৃত্বে ভারতের ভূমিকা বিশ্ব রাজনীতিতে ক্রমশই বাড়ছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) মস্কোতে ভালদাই ডিসকাশন ক্লাবের বৈঠকে এসব কথা বলেন পুতিন।যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমের বিভিন্ন দেশ যখন পুতিনের কঠোর নিন্দায় মুখর, তখন পুতিনের এ মোদি-বন্দনাকে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে। ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকেই জাতিসংঘে আনা রাশিয়া-বিরোধী সব প্রস্তাবেই ভোট দেওয়া থেকে বিরত থেকেছে মোদি সরকার। তবে ভারত সহিংসতার পথ থেকে সরে দ্রুত সংলাপ ও কূটনীতিতে ফেরার কথা বলেছে। সম্প্রতি এসসিও সম্মেলনের পার্শ্ব-বৈঠকে পুতিনকে মোদি বলেছেন, এসময় যুদ্ধ নয়, বরং জ্বালানি, খাদ্য এবং সারের প্রয়োজন।

কূটনৈতিকরা বলছেন, কোনো রাষ্ট্রকে তার আগ্রাসনের জন্য নাম না নিয়ে সংলাপে ফেরার অনুরোধ করা এক বিষয়। সে দেশের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নিন্দা প্রস্তাবে ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়ে ভোট দেওয়া অন্য বিষয়। ভারত ইউক্রেনের পাশে দাঁড়ানোর কাজটি কখনোই করেনি। সে কারণেই হয়ত মোদির প্রশংসা করে তাকে কৃতজ্ঞতা জানালেন পুতিন। শুধু তাই নয়, পুতিন মনে করিয়ে দিয়েছেন, ভারতের কৃষির জন্য তিনি এ বছর আগের তুলনায় ৭.৬ গুণ সার বেশি সরবরাহ করেছেন।

মস্কোয় একটি আলোচনাসভায় ভারত-রাশিয়া প্রসঙ্গে পুতিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি মহান দেশপ্রেমিক। নরেন্দ্র মোদি বিশ্বের সেই নেতাদের মধ্যে একজন, যিনি তার নিজের দেশ এবং জনগণের স্বার্থে স্বাধীন পররাষ্ট্রনীতি অনুসরণ করতে পেরেছেন। আমি নিশ্চিত, ভারতের ভবিষ্যৎ খুবই উজ্জ্বল।…. এই পথে তাকে থামানোর চেষ্টা হয়েছে। তবে তিনি তার লক্ষ্যের দিকে এগিয়ে চলেছেন।

রুশ প্রেসিডেন্ট বলেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের কোনো বকেয়া সমস্যা নেই। আমরা সবসময় পরস্পরকে সমর্থন করেছি। আমি আশাবাদী যে ভবিষ্যতেও তা হবে।দু’দেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে বলতে গিয়ে পুতিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী মোদি আমাকে সারের সরবরাহ বাড়াতে বলেছেন। ভারতীয় কৃষির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সেটা। এই আবহে আমরা সার সরবরাহ ৭.৬ গুণ বৃদ্ধি করেছি।

তিনি বলেন, ভারত যেভাবে ব্রিটিশ কলোনি থেকে একটি স্বাধীন দেশ হয়ে উঠেছে, তা সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে এবং একে সম্মান করা উচিত। বিগত কয়েক বছরে মোদির নেতৃত্বে ভারত অনেকটা এগিয়ে গেছে। তার মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্প গুরুত্বপূর্ণ।