ঢাকা ১১:১৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
আল্লামা আব্দুচ্ছালাম শাহ (রহঃ) স্মৃতি সংসদের কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠিত যুক্তরাষ্ট্র হবিগঞ্জ জেলা সমিতি পক্ষ হতে ০৩ টি পরিবারকে স্বাবলম্বি করার ক্ষুদ্র প্রচেষ্ঠা বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩ দিন যাবত অবস্থান করছেন প্রেমিকা আ.লীগ নয়, বিএনপির প্রধান শত্রু জনগণ : শেখ পরশ শেখ হাসিনার উন্নয়ন বার্তা পৌঁছে দিতে হবে : ফারুক খান সংবিধানের আলোকে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করেছেন শেখ হাসিনা বিএনপির গণতন্ত্র মানে খালেদা-তারেকের শাসন ফেরত আনা : জয় দেশকে শিশুদের নিরাপদ আবাসভূমি করতে সরকার অঙ্গীকারাবদ্ধ স্মার্ট বাংলাদেশে সব নাগরিক সুবিধা থাকবে : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সভাপতি রহমত, সম্পাদক কবির রামগঞ্জ প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব হলেন গুলশাহানা

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক গুলশাহানা (ঊর্মি)।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। গুলশাহানা ঊর্মি জনসংখ্যা স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেল, সহকারী পরিচালক, বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা (বিসিএস তথ্য) বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেস উইং-এ সহকারী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রেস উইং-এ একজন প্রেস সচিব, দুইজন উপ-প্রেস সচিব ও দুইজন সহকারী প্রেস সচিব রয়েছেন। সরকারি নারী কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রথম এই পদে দায়িত্ব পালনের সুযোগ পেলেন গুলশাহানা ঊর্মি।

গুলশাহানা (ঊর্মি) ২০১০ সালের ১ ডিসেম্বর বিসিএস ২৮ ব্যাচের তথ্য ক্যাডারের কর্মকর্তা হিসেবে বাংলাদেশ বেতারে যোগদান করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগ থেকে বিএ (সম্মান) ও এমএ করেছেন। তার জন্ম জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. গাজীয়ার রহমানের সন্তান গুলশাহানা ঊর্মি। তার বাবাও বিসিএস (অ্যাডমিন) হিসেবে ১৯৭২ সাল থেকে দেশসেবায় নিযুক্ত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা বাবার আদর্শ ও চেতনাকে নিজের মধ্যে ধারণ করে গুলশাহানা ঊর্মি দেশপ্রেমে সম্মুজ্জ্বল।

গুলশাহানা ঊর্মি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া অবস্থায় ছাত্র রাজনীতিতে আত্মনিবেদিত ছিলেন। ২০০২ সালে থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রোকেয়া হল শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এবং ১/১১-এর সময়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন।

গুলশাহানা ঊর্মির স্বামী এন. আই আহমেদ সৈকত একজন ব্যবসায়ী ও উপ-আইসিটি বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে দায়িত্ব পালন করছেন। শায়ান ও সৈমী নামে এই দম্পতির দুই সন্তান রয়েছে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

আল্লামা আব্দুচ্ছালাম শাহ (রহঃ) স্মৃতি সংসদের কার্যনির্বাহী পরিষদ গঠিত

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব হলেন গুলশাহানা

আপডেট সময় ০১:৩২:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ অক্টোবর ২০২২

প্রধানমন্ত্রীর সহকারী প্রেস সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক গুলশাহানা (ঊর্মি)।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। গুলশাহানা ঊর্মি জনসংখ্যা স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সেল, সহকারী পরিচালক, বাংলাদেশ বেতার, ঢাকা (বিসিএস তথ্য) বর্তমানে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেস উইং-এ সহকারী পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রেস উইং-এ একজন প্রেস সচিব, দুইজন উপ-প্রেস সচিব ও দুইজন সহকারী প্রেস সচিব রয়েছেন। সরকারি নারী কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রথম এই পদে দায়িত্ব পালনের সুযোগ পেলেন গুলশাহানা ঊর্মি।

গুলশাহানা (ঊর্মি) ২০১০ সালের ১ ডিসেম্বর বিসিএস ২৮ ব্যাচের তথ্য ক্যাডারের কর্মকর্তা হিসেবে বাংলাদেশ বেতারে যোগদান করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাষাবিজ্ঞান বিভাগ থেকে বিএ (সম্মান) ও এমএ করেছেন। তার জন্ম জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. গাজীয়ার রহমানের সন্তান গুলশাহানা ঊর্মি। তার বাবাও বিসিএস (অ্যাডমিন) হিসেবে ১৯৭২ সাল থেকে দেশসেবায় নিযুক্ত ছিলেন। মুক্তিযোদ্ধা বাবার আদর্শ ও চেতনাকে নিজের মধ্যে ধারণ করে গুলশাহানা ঊর্মি দেশপ্রেমে সম্মুজ্জ্বল।

গুলশাহানা ঊর্মি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়া অবস্থায় ছাত্র রাজনীতিতে আত্মনিবেদিত ছিলেন। ২০০২ সালে থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রোকেয়া হল শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এবং ১/১১-এর সময়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনার মুক্তি আন্দোলনে নেতৃত্ব দেন।

গুলশাহানা ঊর্মির স্বামী এন. আই আহমেদ সৈকত একজন ব্যবসায়ী ও উপ-আইসিটি বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে দায়িত্ব পালন করছেন। শায়ান ও সৈমী নামে এই দম্পতির দুই সন্তান রয়েছে।