ঢাকা ১০:২৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::
কটিয়াদীতে নাইট মিনি ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত আজমিরীগঞ্জে জাকজমকভাবে ৫ শতাধিক মন্ডপে বিদ্যাদেবী সরস্বতী পুজা অনুষ্ঠিত রাজধানীতে পৃথক দুর্ঘটনায় দুই শিশুসহ নিহত-৩ লোহাগাড়া থানা পুলিশের অভিযানে ৩ টি বিপন্ন প্রাণী সহ আটক ৪ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে প্রধানমন্ত্রী প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষার ডিজিটাল প্লাটফর্ম তৈরী করেছেন প্রাচীন নিদর্শন ৩ গম্বুজ দেওগাঁ জামে মসজিদ কিশোরগঞ্জে ফরহাদ গ্যাংয়ের ৩ সদস্য আটক কুমিল্লা চৌদ্দগ্রামে ট্রাক চাপায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত চট্টগ্রাম মতি টাওয়ার মতি কমপ্লেক্স ট্রাভেলস এজেন্সি এসোসিয়েশনের মাসিক সভা-২০২৩ হবিগঞ্জের জীবন সংগ্রামী তরুণ নেজামুল হক

স্বামী আপনাকে ভীষণ ভালোবাসে, বুঝবেন যেভাবে

একজন নারী যখন বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে যান, সেখানে আপন বলতে একজনই থাকে, তিনি হলেন তার স্বামী। স্বামী যদি সত্যিকার অর্থেই আপনজন হন, তবে আর কষ্টের কারণ থাকে না। একসঙ্গে সংসার করতে গেলে সবগুলো দিন একইভাবে কাটে না। কখনো মনোমালিন্য হতে পারে, ঝগড়াঝাটি হতে পারে। তার মানে এই নয় যে সম্পর্কে ভালোবাসা নেই।

স্বামী আপনাকে কতটা ভালোবাসে তা যদি বুঝতে চান তবে কিছু বিষয়ের দিকে নজর রাখতে হবে। আপনি যদি তার ভালোবাসার বিষয়টি বুঝতে না পারেন তবে সম্পর্ক গতি হারাবে। একজন ভালো মানুষকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পেয়েও আপনি যদি তার গুরুত্ব বুঝতে না পারেন তবে সেটি দুঃখজনক। কয়েকটি লক্ষণ দেখে বোঝা যাবে স্বামী আপনাকে অনেক বেশি ভালোবাসে। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

নিজের থেকে আপনার চিন্তা বেশি করে

বেশিরভাগ মানুষই নিজের জন্য চিন্তাটা বেশি করে। কম মানুষই এমন থাকে যে নিজের চেয়ে অন্যের জন্য বেশি চিন্তা করে। বিশেষ করে স্ত্রীকে এত বেশি ভালো খুব কম পুরুষই বাসে। আপনি যদি দেখেন যে আপনার স্বামী নিজের চেয়েও বেশি আপনার জন্য চিন্তা করছে তাহলে সন্তুষ্ট থাকুন। জীবনসঙ্গী যখন সবচেয়ে বড় শুভাকাঙ্ক্ষী হন, তখন সংসার আরও বেশি সুখের হয়ে ওঠে।

আপনার ভালোলাগা-মন্দলাগা গুরুত্ব পায়

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় পুরুষ মানুষ নিজের ভালোবাসা অন্যের উপর চাপিয়ে দিয়ে থাকেন। এবার এটা করলে মহা সমস্যা তৈরি হয়ে যেতে পারে। তাই আপনাকে অবশ্যই নিজের ভালোলাগার দিকে গুরুত্ব দিতে হবে। তবেই সমস্যার করা যেতে পারে সমাধান। অন্যথায় সমস্যা বাড়বে বই কমবে না।

সবার সামনে আপনার প্রশংসা করে

একজন যোগ্য স্বামী তার স্ত্রীর প্রশংসা সবার সামনেই করে। নিজের স্ত্রীকে নিয়ে গর্বিত হওয়া একটি খুব ভালো গুণ। সে যদি সবার সামনেই আপনার গুণগুলোর প্রশংসা করে বা আপনার ভালো দিকগুলো বলে, এটি আপনার জন্য অত্যন্ত সুখের বিষয়। তার প্রতি প্রত্যাশার পরিমাণ বাড়িয়ে দেবেন না। সে এমনিতেই আপনাকে অনেক বেশি ভালোবাসে।

সব সময় পাশে থাকে

সুখের সময়ই কেবল নয়, দুঃসময়েও যে আপনার পাশে থাকে তার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকুন। আপনার স্বামীর মধ্যে যদি আপনার প্রতি এই ভালোবাসাটুকু থাকে, তা ধরে রাখার চেষ্টা করুন। খারাপ সময়ে পাশে থাকতে পারার মতো ধৈর্য ও ভালোবাসা থাকলে সেই সম্পর্ক নষ্ট হবে না। একইভাবে আপনিও তার সুখে-দুখে পাশে থাকুন।

আপনাকে এগিয়ে যেতে বলে

স্ত্রীর ক্যারিয়ারের প্রতি ভালোবাসা বা সম্মানবোধ অনেক স্বামীরই থাকে না। আপনার স্বামী যদি আপনার লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে সব সময় উৎসাহ দিতে থাকে তবে জেনে রাখুন, সে আপনাকে ভীষণ ভালোবাসে। তার এই ভালোবাসাটুকু গ্রহণ করুন। তার ইচ্ছার প্রতি সম্মান জানান।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

কটিয়াদীতে নাইট মিনি ফুটবল প্রীতি ম্যাচ অনুষ্ঠিত

স্বামী আপনাকে ভীষণ ভালোবাসে, বুঝবেন যেভাবে

আপডেট সময় ০১:১৪:৪৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ৩ অক্টোবর ২০২২

একজন নারী যখন বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে যান, সেখানে আপন বলতে একজনই থাকে, তিনি হলেন তার স্বামী। স্বামী যদি সত্যিকার অর্থেই আপনজন হন, তবে আর কষ্টের কারণ থাকে না। একসঙ্গে সংসার করতে গেলে সবগুলো দিন একইভাবে কাটে না। কখনো মনোমালিন্য হতে পারে, ঝগড়াঝাটি হতে পারে। তার মানে এই নয় যে সম্পর্কে ভালোবাসা নেই।

স্বামী আপনাকে কতটা ভালোবাসে তা যদি বুঝতে চান তবে কিছু বিষয়ের দিকে নজর রাখতে হবে। আপনি যদি তার ভালোবাসার বিষয়টি বুঝতে না পারেন তবে সম্পর্ক গতি হারাবে। একজন ভালো মানুষকে জীবনসঙ্গী হিসেবে পেয়েও আপনি যদি তার গুরুত্ব বুঝতে না পারেন তবে সেটি দুঃখজনক। কয়েকটি লক্ষণ দেখে বোঝা যাবে স্বামী আপনাকে অনেক বেশি ভালোবাসে। চলুন জেনে নেওয়া যাক-

নিজের থেকে আপনার চিন্তা বেশি করে

বেশিরভাগ মানুষই নিজের জন্য চিন্তাটা বেশি করে। কম মানুষই এমন থাকে যে নিজের চেয়ে অন্যের জন্য বেশি চিন্তা করে। বিশেষ করে স্ত্রীকে এত বেশি ভালো খুব কম পুরুষই বাসে। আপনি যদি দেখেন যে আপনার স্বামী নিজের চেয়েও বেশি আপনার জন্য চিন্তা করছে তাহলে সন্তুষ্ট থাকুন। জীবনসঙ্গী যখন সবচেয়ে বড় শুভাকাঙ্ক্ষী হন, তখন সংসার আরও বেশি সুখের হয়ে ওঠে।

আপনার ভালোলাগা-মন্দলাগা গুরুত্ব পায়

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় পুরুষ মানুষ নিজের ভালোবাসা অন্যের উপর চাপিয়ে দিয়ে থাকেন। এবার এটা করলে মহা সমস্যা তৈরি হয়ে যেতে পারে। তাই আপনাকে অবশ্যই নিজের ভালোলাগার দিকে গুরুত্ব দিতে হবে। তবেই সমস্যার করা যেতে পারে সমাধান। অন্যথায় সমস্যা বাড়বে বই কমবে না।

সবার সামনে আপনার প্রশংসা করে

একজন যোগ্য স্বামী তার স্ত্রীর প্রশংসা সবার সামনেই করে। নিজের স্ত্রীকে নিয়ে গর্বিত হওয়া একটি খুব ভালো গুণ। সে যদি সবার সামনেই আপনার গুণগুলোর প্রশংসা করে বা আপনার ভালো দিকগুলো বলে, এটি আপনার জন্য অত্যন্ত সুখের বিষয়। তার প্রতি প্রত্যাশার পরিমাণ বাড়িয়ে দেবেন না। সে এমনিতেই আপনাকে অনেক বেশি ভালোবাসে।

সব সময় পাশে থাকে

সুখের সময়ই কেবল নয়, দুঃসময়েও যে আপনার পাশে থাকে তার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকুন। আপনার স্বামীর মধ্যে যদি আপনার প্রতি এই ভালোবাসাটুকু থাকে, তা ধরে রাখার চেষ্টা করুন। খারাপ সময়ে পাশে থাকতে পারার মতো ধৈর্য ও ভালোবাসা থাকলে সেই সম্পর্ক নষ্ট হবে না। একইভাবে আপনিও তার সুখে-দুখে পাশে থাকুন।

আপনাকে এগিয়ে যেতে বলে

স্ত্রীর ক্যারিয়ারের প্রতি ভালোবাসা বা সম্মানবোধ অনেক স্বামীরই থাকে না। আপনার স্বামী যদি আপনার লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে সব সময় উৎসাহ দিতে থাকে তবে জেনে রাখুন, সে আপনাকে ভীষণ ভালোবাসে। তার এই ভালোবাসাটুকু গ্রহণ করুন। তার ইচ্ছার প্রতি সম্মান জানান।