ঢাকা ১০:২৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম ::

শত্রুতার জেরে আম বাগানের ঘর ভাঙচুর” মালামাল লুট”

শত্রুতার জেরে এক ব্যক্তির আম বাগানে অবস্থিত ঘর ভাঙচুর করে মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গোয়ালা ইউনিয়নের শ্রীধরবাটি গ্রামে বুধবার দিনগত রাতে।

সরজমিনে গিয়ে গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে দীর্ঘদিন যাবত শ্রীধর বাটি গ্রাম সংলগ্ন ৮২ শতক জমিতে আমবাগান করে ভোগ দখল করে আসছে শ্রীধর বাটি (পলাশডাঙ্গা) গ্রামের আব্দুল জব্বার এর পুত্র আব্দুল আলিম। উক্ত সম্পত্তির উপর যবর দখলের চেষ্টা করে আসছেন শ্রীধর বাটি গ্রামের মৃত্যু কছিমউদ্দিন এর পুত্র সামরুল ইসলাম সেন্টু মাস্টার। এ বিষয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। জবর দখলের চেষ্টায় আব্দুল আলীমকে বাগান হতে উচ্ছেদ করতে সামরুল ইসলাম সেন্টু মাস্টার তার সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা ১৩ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে বাগানের মাঝে অবস্থিত বাঁশ, মাটি ও টিন দ্বারা নির্মিত ঘরটি ভাঙচুর করে ঘরে থাকা বিষ প্রয়োগ করা ঝড় মেশিন, দুইটা বালতি, একটা ব্রেল, ২০ টা কাঠের থুম্বা,৩০ টি সিমেন্টের থুম্বা সহ প্রয়োজনীয় আরো কিছু মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা দায়ের না হলেও মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ভিকটিম। ওই গ্রামের বয়োজ্যেষ্ঠ বীর মুক্তিযোদ্ধা আফসার আলীর নিকট সাংবাদিকরা বিষয়টা জানতে চাইলে তিনি জানান আমরা জমিটির কাগজপত্র দেখেছি যাহা আব্দুল আলীমের বাবা আব্দুল জব্বার এর নামে এবং তাদের দখলে রয়েছে অপরদিকে সেন্টু মাস্টার তাকে নিরীহ পেয়ে জবর দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ঘটনার সত্যতা জানার জন্য সামরুল ইসলাম সেন্টু মাস্টারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে গোয়ালা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান এর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান ঘটনাটা ঘটানো তাদের ঠিক হয়নি বিষয়টা আমি মীমাংসার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি এরই মধ্যে এ ধরনের ঘটনার সূত্রপাত ঘটাছে তারা।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

জনপ্রিয় সংবাদ

আ.লীগ নয়, বিএনপির প্রধান শত্রু জনগণ : শেখ পরশ

শত্রুতার জেরে আম বাগানের ঘর ভাঙচুর” মালামাল লুট”

আপডেট সময় ০৬:০০:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

শত্রুতার জেরে এক ব্যক্তির আম বাগানে অবস্থিত ঘর ভাঙচুর করে মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার গোয়ালা ইউনিয়নের শ্রীধরবাটি গ্রামে বুধবার দিনগত রাতে।

সরজমিনে গিয়ে গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে দীর্ঘদিন যাবত শ্রীধর বাটি গ্রাম সংলগ্ন ৮২ শতক জমিতে আমবাগান করে ভোগ দখল করে আসছে শ্রীধর বাটি (পলাশডাঙ্গা) গ্রামের আব্দুল জব্বার এর পুত্র আব্দুল আলিম। উক্ত সম্পত্তির উপর যবর দখলের চেষ্টা করে আসছেন শ্রীধর বাটি গ্রামের মৃত্যু কছিমউদ্দিন এর পুত্র সামরুল ইসলাম সেন্টু মাস্টার। এ বিষয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। জবর দখলের চেষ্টায় আব্দুল আলীমকে বাগান হতে উচ্ছেদ করতে সামরুল ইসলাম সেন্টু মাস্টার তার সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা ১৩ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে বাগানের মাঝে অবস্থিত বাঁশ, মাটি ও টিন দ্বারা নির্মিত ঘরটি ভাঙচুর করে ঘরে থাকা বিষ প্রয়োগ করা ঝড় মেশিন, দুইটা বালতি, একটা ব্রেল, ২০ টা কাঠের থুম্বা,৩০ টি সিমেন্টের থুম্বা সহ প্রয়োজনীয় আরো কিছু মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মামলা দায়ের না হলেও মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ভিকটিম। ওই গ্রামের বয়োজ্যেষ্ঠ বীর মুক্তিযোদ্ধা আফসার আলীর নিকট সাংবাদিকরা বিষয়টা জানতে চাইলে তিনি জানান আমরা জমিটির কাগজপত্র দেখেছি যাহা আব্দুল আলীমের বাবা আব্দুল জব্বার এর নামে এবং তাদের দখলে রয়েছে অপরদিকে সেন্টু মাস্টার তাকে নিরীহ পেয়ে জবর দখলের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ঘটনার সত্যতা জানার জন্য সামরুল ইসলাম সেন্টু মাস্টারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়। এ বিষয়ে গোয়ালা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান এর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি সাংবাদিকদের জানান ঘটনাটা ঘটানো তাদের ঠিক হয়নি বিষয়টা আমি মীমাংসার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি এরই মধ্যে এ ধরনের ঘটনার সূত্রপাত ঘটাছে তারা।