ঢাকা ১২:০৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নাটোরে অসংখ্য নেতাকর্মীকে আহত করেছে পুলিশ” ফখরুল

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নাটোরের লালপুরে পুলিশ নৃশংস হামলা ও গুলি চালিয়ে বিএনপির অসংখ্য নেতাকর্মীকে আহত করেছে। তিনি বলেন, আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থাই মুমূর্ষু। পুলিশের এই নৃশংস হামলা ও নেতাকর্মীদের আহত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মহাসচিবের এ নিন্দার কথা জানানো হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমান সরকার দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত করার হীন চক্রান্তের অংশ হিসেবে বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের দিয়ে বেপরোয়া বাধা প্রদান করছে। এরই অংশ হিসেবে আজ নাটোর জেলাধীন লালপুর উপজেলায় বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বর্বরোচিত হামলা ও গুলি চালিয়ে বিএনপিএবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের অসংখ্য নেতাকর্মীকে আহত করেছে।

আহত নেতাকর্মীদের মধ্যে আব্দুল মজিদ, আমির হোসেন, আলি আহমেদ, আনোয়ার, জিল্লুর রহমান, আসতাব আলী, আফসার, জাহাঙ্গীর, জামিরুল, আব্দুর রহিম ও খলিলের অবস্থা খুবই গুরুতর। গুরুতর আহত নেতাকর্মীদের চিকিৎসা চলছে।

তিনি আরও বলেন, সরকারের নীল নকশা বাস্তবায়ন করতে সরকারদলীয় সন্ত্রাসী এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, ভাঙচুর, বানোয়াট মামলা দিয়ে গ্রেফতার করেছে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, বিএনপির সভা-সমাবেশ পণ্ড করার কাজে সিপাহসালারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। তবে সরকারের সকল অপকর্ম ও জনগণসহ রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের ওপর জুলুম-নির্যাতনের হিসাব কড়ায়-গন্ডায় আদায় করতে জনগণের উত্তাল ঢেউ এখন প্রবল হচ্ছে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

আপলোডকারীর তথ্য

নাটোরে অসংখ্য নেতাকর্মীকে আহত করেছে পুলিশ” ফখরুল

আপডেট সময় ০৫:২৬:০৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, নাটোরের লালপুরে পুলিশ নৃশংস হামলা ও গুলি চালিয়ে বিএনপির অসংখ্য নেতাকর্মীকে আহত করেছে। তিনি বলেন, আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থাই মুমূর্ষু। পুলিশের এই নৃশংস হামলা ও নেতাকর্মীদের আহত করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মঙ্গলবার (৬ সেপ্টেম্বর) রাতে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু স্বাক্ষরিত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মহাসচিবের এ নিন্দার কথা জানানো হয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বর্তমান সরকার দেশে একদলীয় শাসনব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত করার হীন চক্রান্তের অংশ হিসেবে বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও সরকারদলীয় সন্ত্রাসীদের দিয়ে বেপরোয়া বাধা প্রদান করছে। এরই অংশ হিসেবে আজ নাটোর জেলাধীন লালপুর উপজেলায় বিএনপির শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বর্বরোচিত হামলা ও গুলি চালিয়ে বিএনপিএবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের অসংখ্য নেতাকর্মীকে আহত করেছে।

আহত নেতাকর্মীদের মধ্যে আব্দুল মজিদ, আমির হোসেন, আলি আহমেদ, আনোয়ার, জিল্লুর রহমান, আসতাব আলী, আফসার, জাহাঙ্গীর, জামিরুল, আব্দুর রহিম ও খলিলের অবস্থা খুবই গুরুতর। গুরুতর আহত নেতাকর্মীদের চিকিৎসা চলছে।

তিনি আরও বলেন, সরকারের নীল নকশা বাস্তবায়ন করতে সরকারদলীয় সন্ত্রাসী এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর হামলা, ভাঙচুর, বানোয়াট মামলা দিয়ে গ্রেফতার করেছে।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, বিএনপির সভা-সমাবেশ পণ্ড করার কাজে সিপাহসালারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে। তবে সরকারের সকল অপকর্ম ও জনগণসহ রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের ওপর জুলুম-নির্যাতনের হিসাব কড়ায়-গন্ডায় আদায় করতে জনগণের উত্তাল ঢেউ এখন প্রবল হচ্ছে।