ঢাকা ০৪:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফেসবুক কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস আসছে

প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নিয়মিত তথ্য ও প্রযুক্তিগত পরিবর্তন আনছে ফেসবুক। এসব পরিবর্তন নিয়ে গত আঠারো বছরে ব্যবহারকারীরা কখনো প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে পারেননি। সম্প্রতি ফেসবুকের মূল কোম্পানি মেটা তাদের এই সিদ্ধান্তে পরিবর্তন করছে।

দীর্ঘ আঠারো বছর পর ফেসবুক প্রথমবারের মতো কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস সেন্টার চালু করছে ব্যবহারকারীদের জন্য। ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে সম্প্রতি বিষয়টি উঠে এসেছে। সংবাদমাধ্যমটি মেটার ভিপি অব গভার্ননেস ব্রান্ট হ্যারিসের সঙ্গে কথা বলে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

যদিও প্রতিবেদনে মেটার কাস্টমার সার্ভিসের ফাংশন কেমন হবে, সে সম্পর্কে তেমন কোনো ধারণা দেয়নি। বলা হয়েছে, একটি পাইলট প্রজেক্টের অধীনে এই সার্ভিস নিয়ে আসছে মেটা। এতে ব্যবহারকারীরা ইংরেজি ভাষায় সেবা নিতে পারবেন।

ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানায়, যেসব ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট লকড হয়ে গেছে, সেসব ব্যবহারকারীকে প্রথমবারের মতো সরাসরি সহযোগিতা দেওয়ার প্রক্রিয়া চালু করছে। যদিও মেটা এখনো স্পষ্ট করে বলেনি কাস্টমার সার্ভিস প্রোগ্রাম কবে নাগাদ চালু হচ্ছে, কিংবা এ নিয়ে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু হয়েছে কিনা।

এখন স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠতে পারে, মেটা কি শুধুমাত্র ফেসবুকের জন্যই এই সার্ভিস নিয়ে আসছে? এমন প্রশ্নের উত্তর হবে ‌‌‘না’। জানা গেছে, মেটা ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, হরিজন ভিআরসহ অন্যান্য সব অঙ্গ প্রতিষ্ঠানের জন্যই এই কাস্টমার সার্ভিস চালু করার চিন্তাভাবনা করছে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

ফেসবুক কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস আসছে

আপডেট সময় ১১:৩৭:১১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৮ অগাস্ট ২০২২

প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নিয়মিত তথ্য ও প্রযুক্তিগত পরিবর্তন আনছে ফেসবুক। এসব পরিবর্তন নিয়ে গত আঠারো বছরে ব্যবহারকারীরা কখনো প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে পারেননি। সম্প্রতি ফেসবুকের মূল কোম্পানি মেটা তাদের এই সিদ্ধান্তে পরিবর্তন করছে।

দীর্ঘ আঠারো বছর পর ফেসবুক প্রথমবারের মতো কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস সেন্টার চালু করছে ব্যবহারকারীদের জন্য। ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে সম্প্রতি বিষয়টি উঠে এসেছে। সংবাদমাধ্যমটি মেটার ভিপি অব গভার্ননেস ব্রান্ট হ্যারিসের সঙ্গে কথা বলে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

যদিও প্রতিবেদনে মেটার কাস্টমার সার্ভিসের ফাংশন কেমন হবে, সে সম্পর্কে তেমন কোনো ধারণা দেয়নি। বলা হয়েছে, একটি পাইলট প্রজেক্টের অধীনে এই সার্ভিস নিয়ে আসছে মেটা। এতে ব্যবহারকারীরা ইংরেজি ভাষায় সেবা নিতে পারবেন।

ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানায়, যেসব ব্যবহারকারীর অ্যাকাউন্ট লকড হয়ে গেছে, সেসব ব্যবহারকারীকে প্রথমবারের মতো সরাসরি সহযোগিতা দেওয়ার প্রক্রিয়া চালু করছে। যদিও মেটা এখনো স্পষ্ট করে বলেনি কাস্টমার সার্ভিস প্রোগ্রাম কবে নাগাদ চালু হচ্ছে, কিংবা এ নিয়ে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু হয়েছে কিনা।

এখন স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠতে পারে, মেটা কি শুধুমাত্র ফেসবুকের জন্যই এই সার্ভিস নিয়ে আসছে? এমন প্রশ্নের উত্তর হবে ‌‌‘না’। জানা গেছে, মেটা ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, হরিজন ভিআরসহ অন্যান্য সব অঙ্গ প্রতিষ্ঠানের জন্যই এই কাস্টমার সার্ভিস চালু করার চিন্তাভাবনা করছে।