ঢাকা ০৩:০১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২২, ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে কটূক্তি করায় বিখ্যাত তুর্কি গায়িকা আটক

ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গুলসেন নামের প্রসিদ্ধ এক তুর্কি গায়িকাকে আটক করা হয়েছে। ‘তুর্কির ম্যডোনা’-খ্যাত এই তারকার বিরুদ্ধে ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানর বিষয়ে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ আনার পর দ্রুতই এ পদক্ষেপ নেয় তুর্কি সরকার। যদিও গ্রেফতারের আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষমা চেয়েছিলেন গুলসেন। খবর সিএনএন ও বিবিসির।

জানা গেছে, গায়িকার পুরো নাম গুলসেন বায়রাক্তার কোলাকোগলু। তার বয়স ৪৬ বছর। তিনি সমকামিতাকে সমর্থন করেন। খোলামেলা পোশাক পরার কারণে এর আগেও তিনি ব্যাপক সমালোচিত হয়েছেন। সবশেষ ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে কটূক্তির দায়ে গুলসেনকে তার ইস্তাম্বুলের বাড়ি থেকে আটক করা হয়।

গেল এপ্রিল মাসে ইমাম হাতিপ সম্পর্কে একটি কনসার্টে গুলসেন যে কটূ মন্তব্য করেছিলেন তার তদন্তের জন্য বিচারক তাকে কারাদণ্ড দিয়ে রিমান্ডে পাঠান। গুলসেনের এক আইনজীবী আপিল করার এবং তার অবিলম্বে মুক্তি চাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। উল্লেখ্য, সম্প্রতি গায়িকা গুলসেনের কটূক্তি-মন্তব্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে। পরে এ সপ্তাহে তা তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের নেতৃত্বাধীন একে পার্টির শীর্ষ সদস্যদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করে। গুলসেন তুরস্কের জনপ্রিয় গায়িকা হওয়ায়, তার ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান অবমাননা বিষয়ক মামলাটি দেশটির গণমাধ্যমগুলোর শিরোনামে পরিণত হয়েছে।

Tag :

আপনার মতামত লিখুন

Your email address will not be published.

আপনার ইমেইল ও অন্যান্য তথ্য সঞ্চয় করে রাখুন

জনপ্রিয় সংবাদ

ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে কটূক্তি করায় বিখ্যাত তুর্কি গায়িকা আটক

আপডেট সময় ০২:৩১:৫২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ অগাস্ট ২০২২

ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে গুলসেন নামের প্রসিদ্ধ এক তুর্কি গায়িকাকে আটক করা হয়েছে। ‘তুর্কির ম্যডোনা’-খ্যাত এই তারকার বিরুদ্ধে ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানর বিষয়ে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ আনার পর দ্রুতই এ পদক্ষেপ নেয় তুর্কি সরকার। যদিও গ্রেফতারের আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষমা চেয়েছিলেন গুলসেন। খবর সিএনএন ও বিবিসির।

জানা গেছে, গায়িকার পুরো নাম গুলসেন বায়রাক্তার কোলাকোগলু। তার বয়স ৪৬ বছর। তিনি সমকামিতাকে সমর্থন করেন। খোলামেলা পোশাক পরার কারণে এর আগেও তিনি ব্যাপক সমালোচিত হয়েছেন। সবশেষ ধর্মীয় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে কটূক্তির দায়ে গুলসেনকে তার ইস্তাম্বুলের বাড়ি থেকে আটক করা হয়।

গেল এপ্রিল মাসে ইমাম হাতিপ সম্পর্কে একটি কনসার্টে গুলসেন যে কটূ মন্তব্য করেছিলেন তার তদন্তের জন্য বিচারক তাকে কারাদণ্ড দিয়ে রিমান্ডে পাঠান। গুলসেনের এক আইনজীবী আপিল করার এবং তার অবিলম্বে মুক্তি চাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। উল্লেখ্য, সম্প্রতি গায়িকা গুলসেনের কটূক্তি-মন্তব্যের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে। পরে এ সপ্তাহে তা তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের নেতৃত্বাধীন একে পার্টির শীর্ষ সদস্যদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করে। গুলসেন তুরস্কের জনপ্রিয় গায়িকা হওয়ায়, তার ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান অবমাননা বিষয়ক মামলাটি দেশটির গণমাধ্যমগুলোর শিরোনামে পরিণত হয়েছে।